স্টাফ রিপোর্টার, বাঁকুড়া: বাড়িতে সদস্যদের অনুপস্থিতে টাকা-পয়সা, সোনাদানা নিয়ে পালাল চোর। দুঃসাহসিক এই চুরির ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার রাতে। ঘটনাস্থল হল খোদ বাঁকুড়া জেলার ১১ নম্বর ওয়ার্ডের জুনবেদিয়া বাইপাস সংলগ্ন উজ্জ্বয়নী। পুলিশ জানিয়েছে, বাড়ির সদস্যদের অনুপস্থিতির সুবর্ণ সুযোগ কাজে লাগিয়ে নগদ টাকাপয়সা এবং সোনার মূল্যবান অলংকার নিয়ে পালায় চোরেরা। তবে এই দুঃসাহসিক চুরির ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কাউকে ধরতে পারেনি বাঁকুড়া পুলিশ। সবদিক খতিয়ে দেখে তদন্ত শুরু করেছে বাঁকুড়া জেলার সদর থানার পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, লক্ষ্মী পুজোর ঠিক দুদিন পরে অর্থাৎ মঙ্গলবারদিন রাতে চুরির ঘটনাটি ঘটে। সূত্রের খবর, মঙ্গলবার রাতে বাঁকুড়ার তারকনাথ দে নামের ওই শিক্ষক পরিবারের লোকদের নিয়ে বাড়ির বাইরে ছিলেন। আর সেই সুযোগকেই কাজে লাগিয়ে স্কুল মাস্টারের বাড়িতে চুরি করতে ঢোকে চোরেরা। পুলিশ জানিয়েছে, মঙ্গলবার রাতে ওই শিক্ষকের বাড়ির সদর দরজার তালা ভেঙে ঘরের মধ্যে প্রবেশ করে চোরেরা। তারপর লুটপাঠ চালিয়ে সেখান থেকে কেটেও পড়ে । সূত্রের খবর, চুরির ঘটনায় ওই শিক্ষকের বাড়ি থেকে নগদ প্রায় কুড়ি হাজার টাকা ও সাত ভরির মতো গহনা খোয়া গিয়েছে।

চুরির বিষয়ে বাড়ির মালিক বাঁকুড়া সদর থানার পুলিশকে জানিয়েছে, বুধবার তিনি বাড়িতে ফিরে আসলে সদর দরজা সহ ঘরের একাধিক দরজা খোলা অবস্থায় দেখতে পান। পরে ঘরের ভিতরে ঢুকলে আলমারি খোলা এবং ঘরের সমস্ত জিনিসপত্র ছড়ানো ছিটানো অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। তখনই তাঁদের মনে সন্দেহ জাগে। পরে আলমারি তল্লাশি করলে বাড়ির মালিক বুঝতে পারেন তাঁর নগদ টাকা পয়সা সহ ঘরের অনেক দামী জিনিস খোয়া গিয়েছে। পরে ওই শিক্ষকের পক্ষ থেকে বাঁকুড়া সদর থানায় চুরির অভিযোগ দায়ের করা হয়।

এদিকে বাড়ি ফাঁকা অবস্থায় চুরির ঘটনায় আতংকিত হয়ে পড়েছেন বাঁকুড়া জেলার ১১ নম্বর ওয়ার্ডের জুনবেদিয়া বাইপাস সংলগ্ন উজ্জ্বয়নীর বাসিন্দারা। রাতবিরাতে খোদ স্কুল মাস্টারের বাড়িতে চুরির ঘটনায় তাঁরা যথেষ্ট আতংকিত বলে জানান তারকনাথ বাবুর প্রতিবেশীরা।

এদিকে বাঁকুড়া সদর থানার পুলিশ জানিয়েছে, স্কুল মাস্টার তারকনাথ দে’র কাছ থেকে তাঁরা একটি চুরির অভিযোগ পেয়েছে। চুরির ঘটনায় অভিযুক্ত চোরদের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ। গোটা বিষয়টি খতিয়ে দেখে পুলিশের তরফে তদন্ত শুরু করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।