কলকাতা: আগামিকাল রবিবার সূর্যগ্রহণ ঘিরে উত্তেজনার পারদ তুঙ্গে। কলকাতা থেকে ৬৫ শতাংশ, উত্তরবঙ্গে ৭০ শতাংশে হবে গ্রাস পর্ব। তবে সেদিক থেকে উত্তরবঙ্গে গ্রহণ দেখতে পাওয়ার সম্ভাবনা কম, কারণ উত্তরবঙ্গে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে নিম্নচাপ অক্ষরেখার জেরে।

জানানো গিয়েছে কলকাতায় আংশিক গ্রহণ শুরু হবে সকাল ১০.৪৬ মিনিটে, এবং সর্বাধিক গ্রহণ দেখা যাবে দুপুর ১২.৩৫ মিনিটে। কলকাতায় আংশিক সূর্যগ্রহণ শেষ হবে ২.১৭ মিনিটে। পূর্ণগ্রহণ হলেও বলয়গ্রাস সূর্যগ্রহণ একটি বিশেষ ঘটনা, যেখানে চাঁদের ছায়া সূর্যকে সম্পূর্ণ ঢেকে দেয় না। কী ভাবছেন আপনিও দেখবেন এই গ্রহণ? তবে তার আগে জেনে নিন আদৌ এই গ্রহণ দেখা আপনার জন্য মঙ্গল তো?

শাস্ত্র মতে, এই গ্রহণ যদি তুলা, কর্কট, সিংহ, বৃশ্চিক ও কুম্ভ রাশি দেখে তবে তা অত্যন্ত শুভ ফলদায়ক হবে। সেক্ষেত্রে আগামী বছর ভালো কাটবে তাঁদের। নানান বাধাবিঘ্নও কেটে যাওয়ার আশা প্রবল। তবে সিংহ রাশির জাতক , জাতিকারা মঘা নক্ষত্রে গ্রহণ দেখবেন না।

অন্যদিকে তুলা, কর্কট, সিংহ, বৃশ্চিক ও কুম্ভ রাশি ছাড়া অন্য যেকোনও রাশির জন্য অশুভ হতে চলেছে সূর্যগ্রহণ। তাই অন্য রাশির জাতক জাতিকারা সাবধান। দেখতেই পারেন অন্য রাশির জাতক জাতিকারা, তবে বিপদের দায় নিজেদের। অতএব সাবধান।

প্রসঙ্গত, ৩ ঘণ্টা ৫ মিনিট ধরে চলবে গ্রহণ। তবে কলকাতার আকাশ এই বর্ষাকালে মেঘলা থাকার সম্ভাবনা। এমনটাই জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

তাই মেঘ সরা এবং মেঘ ঘিরে ফেলার মাঝে মিলবে সূর্য গ্রহণের দেখা। তবে স্পষ্ট না হলেও খেপে খেপে এই মহাজাগতিক ঘটনা দেখতে পাবে শহরবাসী।

দক্ষিণবঙ্গে কমেছে বর্ষার বৃষ্টি। উত্তরবঙ্গে ব্যাপক ভাবে শুরু হয়েছে বর্ষা। হাওয়া অফিস জানাচ্ছে , উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস জারি করেছে আবহাওয়া দফতর। দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কালিম্পং, কোচবিহার, আলিপুরদুয়ারে ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টি হতে পারে। মালদা, দুই দিনাজপুরেও ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস জারি করা হয়েছে।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা