Health

কলকাতা: দেশে করোনা যেন ম্যাথারন দৌড়ে নাম লিখিয়েছে। আর সেই কারণে হুহু করে বেড়ে চলেছে ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক সূত্রে খবর, গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে কোভিডে আক্রান্ত হয়েছে ৩,৪৮,৮২১ জন। অন্যদিকে ২৪ ঘন্টার মৃত্যুর সংখ্যা বেশ খানিকটা বেড়েছে আগের তুলনায়। ভাইরাসের কবলে পড়ে প্রাণ হারিয়েছে ৪২০৪ জন। সব মিলিয়ে ভারতে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২,৩৩,৪০,৯৩৮।

চিকিৎসক থেকে বিশেষজ্ঞ করোনা ভাইরাসের চেনকে আটকাতে বারবার করোনা বিধি মেনে চলার বার্তা দিয়েছেন। মাস্ক, স্যানিটাইজার এই সমস্ত সরঞ্জাম বাইরে বেরোলে সঙ্গে রাখা আবশ্যক বলে জানানো হচ্ছে। তবে বাড়ির ভেতরে থাকলে কিভাবে ভাইরাস থেকে সুরক্ষা মিলবে এই প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে অনেকের মধ্যে। সে ক্ষেত্রে চিকিৎসকেরা জানাচ্ছেন, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম থাকলে করোনা খুব তাড়াতাড়ি আমাদের শরীরে হানা দিতে পারে। একাধিক মানুষ রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে নানা ওষুধের পাশাপাশি ভেষজ উপাদান গ্রহণ করছে। তবে খাবারের সঙ্গে বেশকিছু নিয়ম মেনে চললে বাড়তে পারে শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা।

১. করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় তরঙ্গে ফের একবার একাধিক রাজ্যে নতুন করে চালু করা হয়েছে লকডাউন পরিষেবা। বন্ধ করা হয়েছে বিভিন্ন সরকারি এবং বেসরকারি সংস্থানগুলি। নতুন করে লকডাউনের ফলে বাড়ির অন্দরে বন্দী হতে হয়েছে ভারতের সমস্ত বয়সের মানুষকে। একভাবে বাড়িতে থাকার ফলে এই সকল মানুষ আসক্ত হয়ে পড়ছে ডিভাইস এর উপর। রাত জেগে সিনেমা দেখা কিংবা কাজ করার ফলে ঘুমের একটা ঘাটতি ঘটছে। চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন, মহামারী পরিস্থিতিতে ঘুমের ঘাটতি ডেকে আনতে পারে বড়ো বিপদ। কারণ হিসেবে ব্যাখ্যা করতে গিয়ে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, পর্যাপ্ত পরিমাণে না ঘুমানোর ফলে আমাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমতে থাকে। সঠিক পরিমাণ ঘুমে আমাদের শরীরের বেশ কয়েকটি কোষ মারাত্মক ভাবে সক্রিয় হয়ে ওঠে এবং রোগজীবাণু গুলিকে হত্যা করতে সহায়তা করে। পাশাপাশি ঘুম আমাদের সেই সময়ে আসে, যখন আমাদের দেহের নানা কোষ এবং মস্তিষ্কের কোষগুলির মেরামত হয়।

২. করোনা মহামারী পরিস্থিতিতে মানসিক চাপ শরীরের পক্ষে খুব ক্ষতিকর। একাধিক বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, যতটা পরিমাণ সম্ভব এই পরিস্থিতিতে মানসিক চাপকে দূরে রাখতে হবে। মানসিকচাপ দূরে রাখার জন্য শুরু করা যেতে পারে বেশ কিছু যোগ ব্যাম। প্রতিদিন নিয়ম করে যোগ ব্যাম করলে শরীরের ভেতরে থাকা টি-কোষ এবং প্রাকৃতিক ঘাতক কোষের মতো বেশ কিছু ক্ষতিকারক কোষের ক্রিয়া-কলাপ হ্রাস পায়। এর পাশাপাশি ব্যাম না করতে চাইলে ১০ মিনিটের জন্য যেকোনো মানসিক চাপ কমানোর ক্রিয়া-কলাপ শুরু করা যেতে পারে, যা শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অনেক গুণ বাড়িয়ে দেয়।

৩. নিয়মিত অনুশীলন শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা শক্তিশালী করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। অনুশীলন দেহকে স্বল্পমেয়াদী চাপের মধ্যে রাখে যাকে ইউট্রাস বলে, যা দীর্ঘমেয়াদী এবং আরো শক্তিশালী করে তোলে মানুষকে। এমনকি স্বল্প মেয়াদের অনুশীলন রোগ প্রতিরোধ কোষকে জীবাণু হত্যার ক্ষেত্রে আরো শক্তিশালী করে তোলে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.