স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: উৎসবের মরশুমে প্রতি বছরে বিদ্যুতের চাহিদা বাড়ে। এ বছর তা আরও বেড়েছে। সামনেই বাঙালির বড় উৎসব দুর্গাপুজো। তবে ওই সময় বিদ্যুতের কোনও সমস্যা হবে না বলে আশ্বাস দিলেন বিদ্যুৎমন্ত্রীর।

কয়লার যোগান ভাবাচ্ছে রাজ্যকে। সামনেই পুজো। উৎসবের মরশুমে প্রতি বছর বিদ্যুতের চাহিদা বাড়ে অনেক গুণ। সেই চাহিদা যোগান দিতে গেলে চাই পর্যাপ্ত কয়লা । কিন্তু বর্ষার সময় কয়লার যোগান ঠিক মত আসছে না। কিন্তু পুজোর আগে সেই যোগান সম্পূর্ণ হয়ে যাবে এ ব্যাপারে আশাবাদী রাজ্য বিদ্যুৎদপ্তর ।

মঙ্গলবার বিদ্যুৎ ভবনে সাংবাদিক সম্মেলন করে বিদ্যুৎ মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় জানান, উৎসবের দিনগুলোতে ৯ হাজার ৫২০ মেগাওয়াট বিদ্যুতের প্রয়োজন রয়েছে। গত বছরের তুলনায় এ বছর তুলনায় এ বছর বছর ৭ শতাংশ বিদ্যুতের চাহিদা বেড়েছে। তা সত্ত্বেও সেই যোগান এবার দিতে প্রস্তুত রাজ্য বিদ্যুৎ বন্টন সংস্থাগুলি।

এদিন বিভিন্ন দফতরের আধিকারিকদের নিয়ে বিদ্যুৎ ভবনে একটি বৈঠক করেন বিদ্যুৎ মন্ত্রী শোভনদেব মন্ত্রী শোভনদেব মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় । কয়লার যোগান যে সব সংস্থাগুলি দেয় তারাও এই দিনের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। বৈঠক শেষে তারা আশ্বাস দিয়েছে পুজোর সময় প্রয়োজন মাফিক কয়লার যোগান দিতে সক্ষম হবেন । ফলে এবার বিদ্যুতের চাহিদা মেটানো নিয়ে চিন্তার কিছু নেই।

তবে হুকিং থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে পুজো কমিটিগুলোকে । সরকারের কাছে আবেদন করলেই সরকার বিদ্যুৎ দিতে প্রস্তুত। তাছাড়া পুজো কমিটিগুলো এখন অনলাইনেও আবেদন করতে পারেন । এরপরও যদি কেউ বিদ্যুৎ চুরি করে সেক্ষেত্রে প্রশাসন আইন মাফিক ব্যবস্থা নেবে তাদের বিরুদ্ধে। কিন্তু তাদের ধরে জেলে পুরে দেওয়া হবে এরকম অমানবিক কাজ করবে না সরকার। এমনটাই জানিয়েছেন বিদ্যুৎ মন্ত্রী।