স্টাফ রিপোর্টার, আলুপুর:  পণের দাবিতে গৃহবধূকে পিটিয়ে খুনের অভিযোগ উঠল স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির বিরুদ্ধে৷ ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার সুন্দরবন কোস্টাল থানার দুই নম্বর সাতজেলিয়া গ্রামে৷ নিহতের নাম কাকুলি মণ্ডল৷ ঘটনায় অভিযুক্ত স্বামী অরুণ মণ্ডলকে গ্রেফতার করেছে সুন্দরবন কোস্টাল থানার পুলিশ৷

অভিযোগ, ২০০৮ সালে গোসবার লাহিড়ীপুরের বাসিন্দা কাকুলির সঙ্গে অরুণের বিয়ে হয়৷ বিয়ের পর থেকেই বিভিন্ন ভাবে বিভিন্ন সময়ে টাকা পয়সার জন্য অত্যাচার করতো স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোকেরা৷ এমনকি গর্ভাবস্থায় কাকুলীকে মারধোর করার কারণে এক প্রতিবন্ধী সন্তানের জন্ম দেয় কাকুলি৷ কিন্তু তারপর থেকে অত্যাচারের মাত্রা আরও বেড়ে যায়৷ কাকুলির পরিবারের অভিযোগ রবিবার শ্বশুরবাড়ির লোকেরই কাকুলিকে পিটিয়ে খুন করে গলায় দড়ি দিয়ে ঝুলিয়ে দেয়৷ রবিবার রাতেই সুন্দরবন কোস্টাল থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে মৃতার পরিবার অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত অরুণ মণ্ডলকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ৷ মৃতদেহ ময়না তদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ৷