নয়াদিল্লি: দেশে বর্ধমান করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে চলায় বন্ধ করা হয়েছে সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি। নিচু শ্রেণির পরীক্ষা বাতিল করার সঙ্গে স্থগিত রাখা হয়েছে একাধিক রাজ্যের বোর্ডের পরীক্ষা। এর পাশাপাশি বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় তাদের চূড়ান্ত বর্ষের পরীক্ষা কীভাবে নেওয়া যায় তার বৈঠক সেরে ফেলছেন। অনেক রাজ্য সরকারের তরফে জানানো হয়েছে পরিস্থিতি খানিকটা নিয়ন্ত্রণে এলে নেওয়া হতে পারে কলেজের চূড়ান্ত বর্ষের পরীক্ষার সঙ্গে সেমিস্টারগুলো। রাজ্য সরকার তরফে জানানো হয়েছিল এই পরীক্ষার ওপর নির্ভর করে থাকে শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ চাকরি এবং উচ্চশিক্ষার মতো বিষয়টি। আর সম্প্রতি ছাত্রদের ভবিষ্যতের কথা মাথায় রেখে এই পথে হাটতে দেখা গেল কেরালার ক্যালিকাট বিশ্ববিদ্যালয়কে।

কেরালার ক্যালিকাট বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে জানানো হয়েছে প্রবেশিকা পরীক্ষা এবং অন্যান্য মানদণ্ডের বিচারে ২০২১ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তররে ভর্তি করানো হবে শিক্ষার্থীদের। ২০২১ শিক্ষাবর্ষে ভর্তির জন্য ক্যালিকাট বিশ্ববিদ্যালয় স্নাতক এবং স্নাতকোত্তররে জন্য আলাদা প্রসপেক্ট জারি করেছে, যা তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট i.e. cuonline.ac.in এর ঠিকানায় পাবে আগ্রহী পরীক্ষার্থীরা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রবেশিকা পরীক্ষা নিয়ে যোগ্য এবং আগ্রহী প্রার্থীরা প্রসপেক্টের উল্লিখিত তারিখ অনুসারে অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করতে পারে। এই পরীক্ষার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় আবেদনের শেষ তারিখ ঠিক করে চলতি বছরের ১০ মে পর্যন্ত।

২০২১ সালের ক্যালিকাট বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রবেশিকা পরীক্ষার ফর্ম প্রকাশ করা হয়েছে প্রতিষ্ঠানের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে। গ্রাহকদের অননলাইন মাধ্যমে এই পরীক্ষার ফর্ম ফিলআপ করতে হবে। প্রতিষ্ঠানের তরফে উল্লেখ করে বলা হয়েছে, স্নাতক স্তরের বিএইচএম এবং বিকম পরীক্ষার্থীদের প্রবেশিকা পরীক্ষার ভিত্তিতে নির্বাচন করা হবে। অন্যদিকে জানানো হয়েছে স্নাতকোত্তর স্তরে এমএ, এমএসসি এবং এমকমের প্রবেশিকা পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে ভর্তি করান হবে।

ক্যালিকাট বিশ্ববিদ্যালয় আসন্ন পরীক্ষার অ্যাডমিট কার্ড প্রকাশ করবে ২০২১ এর ভর্তির জন্য যে সকল শিক্ষার্থী আবেদন করেছে তাদের জন্য। এর পাশাপাশি উল্লেখ করা হয়, পরীক্ষার ৩ দিন আগে সাইটে প্রকাশ করা হবে এই পরীক্ষার অ্যাডমিট কার্ডটি।

বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষার রেজিস্ট্রেশন করবার জন্য দুটি ধাপ অতিক্রম করতে হবে আবেদনকারীদের। প্রথম পর্বে আবেদনকারীদের নিজের বৈধ নথি এবং মোবাইল নম্বর দিয়ে ক্যাপ আইডি তৈরি করতে হবে। এই আইডি তৈরির পরে প্রবেশিকার ফর্ম পূরণ করতে পারবে আবেদনকারীরা।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.