স্টাফ রিপোর্টার, রায়গঞ্জ: পারিবারিক বিবাদকে কেন্দ্র করে জামাইয়ের গুলিতে জখম হলেন দু’জন। আহতদের প্রথমে দলুয়া স্বাস্থকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়৷ পরে শারিরীক অবনতি হওয়য় তাঁদের শিলিগুড়ি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। অভিযুক্ত অবশ্য গা ঢাকা দিয়েছে৷ তার খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ৷

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, চোপড়া থানা এলাকার মুন্সীগঞ্জের মেয়ে নাজমা বেগমের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল চোপড়া ব্লকের হাজারিবাগের মহ ফারুকের। অভিযোগ, বিয়ের পর থেকেই অতিরিক্ত পণের দাবিতে নাজমার ওপর শারীরিক নির্যাতন করত ফারুক৷ অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে সম্প্রতি নাজমা বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। নাজমার পরিবারের পক্ষ থেকে চোপড়া থানায় নিখোঁজ ডাইরি করা হয়।

রবিবার রাতে নাজমার খোঁজে আত্মীয়রা ফারুকের বাড়িতে যায়৷ অভিযোগ, তখনই এলোপাথারি গুলি চালাতে শুরু করে ফারুক৷ ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়েছেন মুস্তাক কামাল ও চান্দ আলী। তাঁদের দু’জনেরই আঘাত গুরুতর৷ অভিযুক্তর খোঁজে পুলিশ তল্লাশি শুরু করেছে৷