দুবাই: দুবাইয়ের এয়ারলাইনস ‘এমিরেটস’-এর বিলাসবহুল ছবি প্রায়ই ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়ে যায়। বিমানের অন্দরমহলের সাজসজ্জা দেখে তাক লেগে যায় বটে। তাই বলে হীরে দিয়ে সাজানো আস্ত ট্রেন! এও সম্ভব নাকি?

হ্যাঁ, এরকমই একটি ছবি পোস্ট করেছে এমিরেটস। ছবিতে দেখা যাচ্ছে, আস্ত বিমান হীরেখচিত। মাধা থেএক পা পর্যন্ত চকচক করছে। ছবি দেখেই হইচই পড়ে যায় ইন্টারনেট জুড়ে। এটা সত্যি না কি সত্যি নয়, তা নিয়ে তৈরি হ ব্যাপক জল্পনা।

এমিরেটস তাদের নিজেদের ট্যুইটার হ্যান্ডেলেও ছবিটি পোস্ট করেন। লেখেন, Presenting the Emirates ‘Bling’ 777. Image created by Sara Shakeel. স্বাভাবিকভাবেই জল্পনা আরও কয়েকগুন বেড়ে যায়। খলিজ টাইমসের রিপোর্ট অনুযায়ী এই সারা শাকিল হলেন একজন ক্রিস্টাল আর্টিস্ট। ইনস্টাগ্রামে তাঁত ৪.৮ লক্ষ ফলোয়ার।

সারার ইনস্টা অ্যাকাউন্টেই এই ছবিটি চোখে পড়ে যায় এমিরেটসের। সারার অনুমতি নিয়েই সেই ছবি পোস্ট করে এমিরেটস। পরে অবশ্য জানায়, যে এতা নিছকই সারার বানানো একটি ক্রিস্টালের তৈরি মডেল মাত্র। এটা সত্যিকারের কোনও বিমান নয়।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.