নয়াদিল্লি: সাফল্যের মুহূর্ত ক্যামেরাবন্দি করে রাখতে সকলেই আগ্রহী। সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে খুব অল্প সময়েই সেই মুহূর্ত পৌঁছে যায় বহু মানুষের কাছে। সম্প্রতি ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে বিশেষ মুহূর্তের সেলফি বা নিজস্বী। মানুষের সঙ্গে এই প্রতিযোগিতায় পিছিয়ে নেই মহাকাশযান। গন্তব্যস্থলে সফলভাবে পৌঁছেই সেলফি তুলল ভারতের বাহুবলি রকেট।

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে ১০৪ টি মহাকাশযানের সফল উৎক্ষেপণ করে ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরো। GSLV MK III নামের বাহুবলি মহাকাশযান সোমবার সফলভাবে পৌঁছে গিয়েছে গন্তব্যস্থলে। পৌঁছেই সেলফি তুলে পাঠিয়েছে ৬৪০ টন ওজনের এই মহাকাশযান। ২০০ টি পূর্ণ বয়স্ক হাতির সমান ওজনের এই মহাকাশযান নিজের নিজস্বীও তুলেছে খুব সফলভাবে।

মহাকাশে যাওয়া সকল যানের মধ্যেই লাগান থাকে উন্নত মানের ক্যামেরা। মহাকাশ থেকে পাওয়া ছবি নিয়েই মূলত চলে নানাবিধ গবেষণা। বর্তমানের বিশ্বায়িত সোশ্যাল মিডিয়ায় আক্রান্ত সমাজ আসক্ত হয়েছে নিজস্বীতে। সেই কারণে সেলফি বা নিজস্বী তোলার মতো প্রযুক্তিগত ব্যবস্থা রাখা হয়েছিল ভারতের বাহুবলি রকেটে। সেই ক্যামেরাতেই সেলফি তুলে পাঠিয়েছে বাহুবলি GSLV MK III।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.