প্রতীকী ছবি

স্টাফ রিপোর্টার, বাঁকুড়া: মানসিক ভারসাম্যহীন এক মহিলার মৃতদেহ উদ্ধারকে ঘিরে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়াল বাঁকুড়া শহরের ১২ নম্বর ওয়ার্ডের বড়কালীতলা এলাকায়। মৃতের নাম ঝর্ণা নাগ (৪৫)।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বড়কালীতলার একটি বাড়িতে থাকতেন ঝর্ণা নাগ ও তাঁর ভাই স্বপন নাগ। ঝর্ণা দাগ দীর্ঘদিন মানসিক রোগের শিকার ছিলেন।

আরও পড়ুন: মালালার কাহিনী বলবে ‘গুল মাকাই’

মঙ্গলবার সকালে বাড়ির বাইরে ওই মহিলার মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। তাঁরাই পুলিশে খবর দেন। খবর পেয়ে বাঁকুড়া সদর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠায়।

স্থানীয়দের একাংশ খুনের ঘটনা বলে দাবি করছে৷ স্থানীয় বাসিন্দা জীতেন দাস জানিয়েছেন, মৃতের মাথায় ও মুখে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাঁদের ধারনা ঝর্ণা নাগকে কেউ বা কারা খুন করেছে।

আরও পড়ুন: ”মহিলা প্রার্থীদের ভোট দেওয়া ইসলামে হারাম”

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত মৃত্যু সম্পর্কে কিছু বলা সম্ভব নয়৷ পুলিশ একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা দায়ের করে তদন্ত শুরু করেছে। তাঁর ভাই স্বপন নাগ এই মৃত্যুর ঘটনায় জড়িত কিনা তাও তদন্ত করছে পুলিশ৷

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV