কলকাতা: রাজ্যে তৃতীয় দফার ভোট শান্তিপূর্ণ৷ জানিয়ে দিলেন বিশেষ পর্যবেক্ষক অজয় নায়েক৷

দিনের শুরুতে ব্যাতিক্রমী ভোটের ছবি দেখার সম্ভাবনা তৈরি হয়৷ কিন্তু বেলা বাড়তেই বদলে যায় পরিবেশ৷ বাতাসে বারুদের গন্ধ৷ সাসক দলের বিরুদ্ধে ছাপ্পা, বিরোধীদের ভয় দেখানো অভিযোগ উঠতে শুরু করে৷ ধরা পড়ে মালদহের রতুয়ায় কংগ্রেস প্রার্থীকে ধরে বিক্ষোভ৷

আরও পড়ুন: লোকসভা নির্বাচনের তৃতীয় দফায় বাংলায় ভোটের বলি এক

এইসব চলার মাঝেই ঘটে যায় মর্মান্তিক ঘটনা৷ ভোটের প্রথম বলি নবাবের জেলার কংগ্রেস সমর্থক পিয়ারুল আবুল কালাম৷ মুর্শিদাবাদের রানিতলা বালিগ্রামে ভোটকেন্দ্রের সামনেই সংঘর্ষ বাঁধে কংগ্রেস ও তৃণমূলের মধ্যে৷ সেখানেই ভোটের লাইনে দাঁড়িয়ে ছিলেন টিয়ারুল আবুল কালাম। ঘটনায় গুরুতর আহত হন তিনি। অবশেষে মৃত্যু হয় তাঁর৷

আরও পড়ুন: টিয়ারুলের মৃত্যুর পর কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশনে ক্ষুব্ধ কংগ্রেস

তবে এসবের পরও বিশেষ পর্যবেক্ষক অজয় নায়েক জানিয়ে দেন বাংলায় তৃতীয়দফায় ভোট হয়েছে মোটের উপর শান্তিপূর্ণ৷ তাঁর এই মন্তব্যের জন্য রাজ্যের বিরোধী দলগুলির নিশানায় প্রাক্তন আমলা তথা ভোটে বাংলার বিশেষ পর্যবেক্ষক অজয় নায়েক৷

আরও পড়ুন: টিয়ারুলের মৃত্যু: কংগ্রেসের বিক্ষোভের মুখে পড়ে দায় এড়াল কমিশন

অজয় নায়েকই বাংলার পরিস্থিতি দেখে দিন কয়েক আগে ১০ বছর আগে বিহারের সঙ্গে তুলনা করেন৷ সরব হয় তৃণমূল৷ বিজেপি-আরএসএসের সঙ্গে বিশেষ পর্যবেক্ষকের যোগাযোগের অভিযোগও তুলেছিল রাজ্যের শাসক দল৷ তাঁর বিরুদ্ধে কমিশনে চিঠি দেয় তারা৷ জানা যায়, কমিশন সতর্ক থাকতে বলেছে নায়েককে৷

এদিন রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারীক ও এডিজি আইন শৃঙ্খলা জানিয়েছেন এদিন মুর্শিদাবাদে নির্বাচনী কেন্দ্রের বাইরে ঘটনা ঘটে৷ চারটি এফআইআর করা হয়েছে৷