স্টাফ রিপোর্টার, সিউড়ি: মিড ডে মিল চুরি করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়ল শিক্ষিকা। শনিবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের শান্তিনেকতন থানা এলাকায়। সেখানকার কঙ্কালীতলা গ্রাম পঞ্চায়েতের বাসিন্দাদের দাবি, দীর্ঘদিন ধরে এই কাজ চলছিল। শনিবার গ্রামের অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রের শিক্ষিকা ও সহায়িকাকে হাতেনাতে ধরা হয়। চুরির সময় ধরা পড়েও ওই শিক্ষিকা ও সহায়িকা অভিযোগ অস্বীকার করেন বলে দাবি করেন স্থানীয় বাসিন্দারা। ফলে এলাকায় উত্তেজনা ছড়ায়। খবর যায় শান্তিনিকেতন থানায়। ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। তারা আটক করে অভিযুক্ত শিক্ষিকা ও সহায়িকাকে।

পুলিশ জানিয়েছে, বিষয়টি শিক্ষা দফতরে জানানো হয়েছে। তাদের তরফে লিখিত অভিযোগ দায়ের হলে তদন্ত শুরু হবে। প্রয়োজনে গ্রেফতার করা হবে ওই দু’জনকে। তবে এখনও পর্যন্ত এ বিষয়ে বীরভূম জেলা শিক্ষা দফতরের কোনও বক্তব্য পাওয়া যায়নি।
এদিকে স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, ওই শিক্ষিকা কল্যাণী ঘোষ ও তাঁর সহকারী লীনা ঘোষ দীর্ঘদিন ধরে এই কাজ করছেন। তাঁরা মিড ডে মিল থেকে সামগ্রী সরিয়ে নিতেন। ফলে নিয়মিত কম পরিমাণে খাবার দেওয়া হত স্কুলের পড়ুয়াদের। এ নিয়ে একাধিকবার অভিযুক্তদের জানানো হয়েছে। কিন্তু তাঁরা পুরোটাই অস্বীকার করেন। তাই স্থানীয়রা অপেক্ষা করছিলেন তাঁদের হাতেনাতে ধরার জন্য।

আর সেই সুযোগ চলে আসে শনিবার সকালে। অভিযোগ, এদিন সকালে অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র ছুটি দেওয়ার পর দুজনেই সেখানে ছিলেন। তখনই সেখানে হানা দেন এলাকার বাসিন্দারা। সেখানে গিয়ে দেখা যায় দু’জনে মিড ডে মিল সরাচ্ছে। তখন তাঁদের হাতেনাতে ধরা হয়।