ফাইল চিত্র৷

স্টাফ রিপোর্টার, তমলুক: এতদিন রক্তদান শিবির বলতে চোখের সামনে একটা চেনা ছবি ভাসত৷ এখন সেই ছবিও অন্য রঙ নিয়েছে৷ কখনও বিয়ের অনুষ্ঠানে তো কখনও আবার ছেলের মুখেভাতে আয়োজন করা হচ্ছে রক্তদান শিবিরের৷ এবার রক্ত সংগ্রহের উদ্দেশ্যে ঝাঁপিয়ে পড়ল মহিষাদলের একদল ছাত্র।

আরও পড়ুন: বিজেপি অফিসে ভাঙচুরে নাম জড়াল তৃণমূলের

যেভাবে রক্তের অভাবে মুমূর্ষু রোগীর মৃত্যু ঘটছে তা নিবারণের উদ্দেশ্যে রবিবার এক বড়মাপের রক্তদান শিবিরের আয়োজন করল ওই এলাকার শিক্ষার্থীরা৷ শুভঙ্কর, অর্ণবের মতো এলাকার একদল শিক্ষার্থীদের দ্বারা গড়ে ওঠা এই সংগঠনের এমন মহৎ উদ্যোগকে কুর্নিশ জানিয়েছে সমগ্র মহিষাদলবাসীও। রবিবার তাদের রক্তদান শিবির হয়৷ প্রায় শতাধিক মানুষ রক্তদান করেন।

তবে এদিন রক্তদান ছাড়াও বিনামূল্যে স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও ছানি অপারেশনের ব্যবস্থা করে এই সংগঠন। তমলুকের এক বেসরকারি সংস্থা শিক্ষার্থীদের এই প্রয়াসে মহিষাদল ছাত্র সমন্বয়ের সঙ্গে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়। ভবিষ্যতে যাতে আর কোনও মুমূর্ষু রোগীকে রক্তের অভাবে জীবন দিতে না হয় সেজন্যই এই উদ্যোগ বলে জানান সংস্থার অন্যতম সদস্য বিক্রম চট্টোপাধ্যায়। ভবিষ্যতে এই ধরনের আরও কল্যাণমূলক কাজ করা হবে বলেও জানান তিনি।

আরও পড়ুন: বিস্ফোরণে কাঁপল কাশ্মীর, আহত ৩

এদিন বিক্রমবাবু ছাড়াও সংস্থার কার্যকরী সভাপতি সুব্রত বসুর কণ্ঠেও শোনা যায় একই কথা। তিনি বলেন, ‘‘ছাত্র সমন্বয় এই ধরনের কাজকে আগামী দিনে পথিকৃৎ করে যাতে সমাজের একটি কোণে পৌঁছতে পারে সেটাই আমাদের একমাত্র লক্ষ্য। তাই আমরা রক্তদানের পাশাপাশি বিনা ব্যয়ে ওষুধ ও চক্ষুরোগীদেরকে চশমা বিতরণ আয়োজন করেছি৷ ছাত্ররাই আগামী দিনে সমাজ গঠনের মূল-কারিগর। তাই পড়াশোনার পাশাপাশি সমাজ কল্যাণমূলক কাজেও ঝাঁপিয়ে পড়লো মহিষাদলের একদল ছাত্ররা।’’

শিক্ষার্থীদের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন উপস্থিত রক্তদাতারাও। রক্তদাতা সুরজিৎ সাঁতরা জানান, ‘‘ছাত্রদের এই উদ্যোগ এক মহান মনের পরিচয়। তারা ভবিষ্যতে আরও এগিয়ে চলুক৷ এটাই আমার একমাত্র কামনা। তাদের এই ধরনের রক্তদান শিবিরকে আমি সাধুবাদ জানাই৷’’

সব মিলিয়ে এদিনের উদ্যোগ যেমন এক ভাল মনের পরিচয়, তেমনই সমাজ-কল্যাণমূলক কর্মসূচি। ভবিষ্যতে তাদের উদ্যোগ আরও সার্থক হোক এটাই একমাত্র চাওয়া রক্তদাতাদের। এদিন শিবিরে আসা সকল রক্তদাতাদের ফুলের মাধ্যমে স্বাগত জানায় শিক্ষার্থীরা।

আরও পড়ুন: আন্ডারপাস নির্মাণের শিলান্যাস করলেন শেখ হাসিনা