তিমিরকান্তি পতি: বাঁকুড়া দুই পঞ্চায়েতের টানাপোড়েনে প্রায় কুড়ি বছর বেহাল রাস্তার সংস্কার হয়নি। এমনই অভিযোগে সরব হলেন, বাঁকুড়া-২ ব্লকের বিকনা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার বাসিন্দারা। তাদের দাবি, এগোড়াবাদ থেকে নড়রাগামী পাঁচ কিলোমিটার রাস্তাটি নড়রা গ্রাম পঞ্চায়েত বলছে তাঁদের নয়, অন্যদিকে বিকনা গ্রাম পঞ্চায়েত বলছে তাঁদের নয়। তাহলে কোন পঞ্চায়েতের অধীনে এই রাস্তাটি তাঁরা বুঝে উঠতে পারছেন না বলে জানান।

গ্রামবাসী শেখর দে, মদন দে-রা বলেন, নড়রা ও বিকনা এই দুই পঞ্চায়েতের টানাপোড়েনের মাঝে পড়ে এই রাস্তাটি দীর্ঘদিন সংস্কার হয়নি। এই মুহূর্তে রাস্তার অবস্থা এতটাই বেহাল যে প্রায়শই ছোটো বড় দুর্ঘটনা ঘটছে। এলাকার বেশ কয়েকটি গ্রামের অসংখ্য ছাত্র ছাত্রী সহ কয়েক হাজার মানুষ প্রতিদিন যাতায়াত করেন। এমনকি হঠাৎ কেউ অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রেও সমস্যায় পড়তে হয়। বিষয়টি প্রশাসনের সর্বস্তরে জানিয়েও কোনও কাজ হয়নি বলে তাঁরা অভিযোগ জানিয়েছেন।

বিজেপি নেতা সৌগত পাত্রের দাবি, ২০১৯ সালের লোকসভা ভোটে তাদের দল জেতার পর শাসকদলের নেতারা উন্নয়ন নিয়েও রাজনীতি শুরু করেছে। আগে যদিও ঐ রাস্তায় স্বল্প পরিমানে মোরাম দেওয়া হত, এখন সেই কাজও বন্ধ বলে তার দাবি।

এই বিষয়ে বাঁকুড়া-২ ব্লকের বিডিও বলেন, ঐ রাস্তাটি জেলাপরিষদের তরফে সংস্কারের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। স্থানীয় তৃণমূল নেতা ও জেলা পরিষদের সদস্য অলক সিং বলেন, পাঁচ কিলোমিটার রাস্তা একসঙ্গে করা যাচ্ছিল না। মোট ৬৫ লক্ষ টাকা রাস্তার সংস্কার খাতে পাওয়া গিয়েছে। যার মধ্যে ৪০ লক্ষের টেন্ডার প্রক্রিয়া শেষ। খুব তাড়াতাড়ি কাজ শুরু হবে। বিজেপি মিথ্যাচার করছে দাবি করে তিনি বলেন, মানুষের দাবিকে অগ্রাধিকার দিয়ে তাঁরা কাজ করে যাচ্ছেন।