তিরুঅনন্তপুরম: কেরলবাসী বিনামূল্যে করোনার ভ্যাকসিন পাবেন। ইতিমধ্যে রাজ্যবাসীর জন্য এই খুশির খবর ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন। মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, কেন্দ্রের হাতে করোনার ভ্যাকসিন এলে নির্দিষ্ট টিকাকরণ কর্মসূচির মাধ্যমে তা কেরলের বাসিন্দাদের বিনামূল্যে দেওয়া হবে। টিকা প্রদান কর্মসূচির যাবতীয় খরচ বহন করবে কেরল সরকার।

গোটা দেশে করোনার সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ে মার্চের শেষ দিক থেকে। সর্বপ্রথম কেরলই করোনাকে নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়েছিল। করোনা নিয়ন্ত্রণে গোটা দেশের মধ্যে কেরল মডেল হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে। তবে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে বেলাগাম পরিস্থিতি তৈরি হয় দক্ষিণের এই রাজ্যে।

প্রতিদিন হাজার-হাজার মানুষ নতুন করে আক্রান্ত হতে থাকেন কেরলে। পাল্লা দিয়ে বাড়তে থাকে মৃত্যু। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, কেরলে নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৬ লক্ষ ৬০ হাজার ছাড়িয়েছে। সেরাজ্যে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২,৫৯৪।

তবে কেরলের বর্তমান সংক্রমণ পরিস্থিতি খানিকটা হলেও নিয়ন্ত্রণে এসেছে। মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন জানিয়েছেন, সেরাজ্যে করোনার সংক্রমণ এখন নিম্নমুখী। পরিসংখ্যান বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় কেরলে নতুন করে ৫ হাজার ৯৪৯ জন নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

সংক্রমণে লাগাম টানতে একাধিক পদক্ষেপ করছে কেরল সরকার। এরই মাঝে ভ্যাকসিন নিয়ে বড়সড় প্রতিশ্রুতি মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নের।

এদিকে, গোটা দেশে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৩০ হাজার ২৫৪ জন। মৃত্যু হয়েছে আরও ৩৯১ জনের। দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৯৮ লক্ষ ৫৭ হাজার ২৯। দেশে করোনায় মোট মৃত্যু ১ লক্ষ ৪৩ হাজার ১৯। ইতিমধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৯৩ লক্ষ ৫৭ হাজার ৪৬৪ জন। এই মুহূর্তে দেশে করোনা অ্যাক্টিভ কেস ৩ লক্ষ ৫৬ হাজার ৫৪৬টি।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

জীবে প্রেম কি আদৌ থাকছে? কথা বলবেন বন্যপ্রাণ বিশেষজ্ঞ অর্ক সরকার I।