মুম্বই- বলিউড ঘিরে রয়েছে শোকের ছায়া। রবিবার রাতে চলে গেলেন সঙ্গীত পরিচালক জুটি সাজিদ-ওয়াজিদের ওয়াজিদ খান। মৃত্য়ুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল মাত্র ৪৩। অভিনেতা সলমন খানের খুব পছন্দের সঙ্গীত পরিচালক ছিলেন সাজিদ-ওয়াজিদ। বেশ কিছু ছবিতে একসঙ্গে কাজ করেছিলেন দুজনে।

সাজিদ ওয়াজিদ নিজেদের কাজই শুরু করেছিলেন সলমনের ছবির সঙ্গে। তাই ওয়াজিদের মৃত্যুতে তাঁকে সম্মান জানালেন সলমন। সলমন একটি টুইট করেছেন। তিনি সেখানে লেখেন, ওয়াজিদ তোমাকে সবসময় ভালোবাসব, সম্মান করব। সব সময়ে তোমায় তোমার গুণের জন্য এবং একজন মানুষ হিসেবে তুমি যেমন ছিলে, তার জন্য মনে করব। তোমায় খুব ভালোবাসি। তোমার সুন্দর আত্মা যেন শান্তিতে থাকে।

১৯৯৮ সালে সলমনের ছবি পেয়ার কিয়া তো ডরনা কেয়া হ্য়ায়তে প্রথম সঙ্গীত পরিচালকের কাজ করেছিলেন ওয়াজিদ। কম্পোজার হিসেবে ওয়াজিদের শেষ কাজ ছিল সলমনের গাওয়া ভাই ভাই গানটি। এই গানটি লকডাউনেই ইদ উপলক্ষে প্রকাশ করেন সলমন। গানটি সম্প্রীতির বার্তা দেয়। এছাড়াও সলমনের এক থা টাইগার, হ্যালো ব্রাদার, মুঝসে শাদি করোগে, দাবাং, পার্টনার, তেরে নাম, ওয়ান্টেড ছবিতে সঙ্গীত পরিচালকের কাজ করেছিলেন এই দুই ভাই সাজিদ ওয়াজিদ জুটি।

জানা যাচ্ছে, বেশ কিছুদিন ধরেই ওয়াজিদের শরীর ভালো যাচ্ছিল না। বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে প্রাণঘাতী ভাইরাস করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন ওয়াজিদ খান। হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন এবং শেষ পর্যায়ে তাঁকে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়। কিডনিতে ইনফেকশনও ছিল বলে শোনা যাচ্ছে।সলমনের ছবি দাবাং ৩-এর মিউজিক লঞ্চে শেষ দেখা গিয়েছিল তাঁকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় খুবই সক্রিয় ছিলেন তিনি।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প