ফাইল ছবি

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: শেষ দফা অর্থাৎ ১৯ মে রাজ্যের ৯টি আসনে ভোট গ্রহন৷ এর মধ্যে রয়েছে যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্র৷ সেখানকার সিপিএম প্রার্থী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য৷ সোমবার তার হয়ে ভাঙড়ে প্রচার করলেন আইনজীবীদের একাংশ৷

রাজ্যের একপ্রান্তে যখন চতুর্থ দফায় ভোট গ্রহন চলছে তখন অন্য প্রান্তে রাজনৈতিক নেতা কর্মীরা ব্যস্ত প্রচারে৷ এদিন একপ্রান্ত থেকে অন্যপ্রান্তে প্রচারে ছুটেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷ তবে এই সবের ব্যতিক্রম ছিল ভাঙড়ে নির্বাচনী প্রচার৷ যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রের সিপিএম প্রার্থী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্যের সমর্থনে ভাঙড়ের রাস্তায় নামেন আইনজীবীদের একাংশ৷

প্রচারে পুরুষ আইনজীবীদের পাশাপাশি ছিলেন মহিলা আইনজীবীরাও৷ ঘটকপুকুর থেকে ভাঙড় থানা পর্যন্ত ওই আইনজীবীরা মিছিল করেন৷ এবং সাধারণ ভোটারদের কাছে আবেদন করেন, তারা যেন সিপিএম প্রার্থীকে ভোট দেন৷ এমনকি ভবিষ্যতে যে কোনও আইনি পরামর্শ দিয়ে ভাঙড়ের সাধারণ মানুষের পাশে থাকবেন৷

সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনে যাদবপুর কেন্দ্রের ভাঙড়ে মূলত তৃণমূল ও বামফ্রন্ট প্রার্থীর মধ্যে জোড় লড়াই হবে৷ তৃণমূল তাদের দলের প্রার্থী করেছে অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীকে৷ অন্যদিকে সিপিএমের প্রার্থী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য৷ বিজেপি প্রার্থী করেছে সদ্য তৃণমূল ত্যাগী অনুপম হাজরাকে৷ তবে ভাঙড়ে সবচেয়ে তাৎপর্য হল জমি জীবিকা বাস্তুতন্ত্র ও পরিবেশ রক্ষা কমিটির বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্যকে সমর্থন করা৷ ফলে বলাই যায় ভাঙড়ে এবার সিপিএম তৃণমূল হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের পথে৷

উল্লেখ্য,সিপিআই(এমএল) রেড স্টার ও জমি জীবিকা বাস্তুতন্ত্র ও পরিবেশ রক্ষা কমিটির সমর্থনে গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে ৫ জন নির্দল প্রার্থী জিতেছিল৷ পোলের হাট ২ নং গ্রাম পঞ্চায়েত থেকে তারা জিতেছিল।তবে গতবার ভাঙড় থেকে প্রায় ৬০ হাজারেরও বেশি ভোটের লিড পেয়েছিল যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী সুগত বসু৷ এবার কি হবে, তা জানা যাবে ২৩ মে ২০১৯৷