স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: বিজেপিতে যোগ দিলেন তৃণমূল কংগ্রেস শিক্ষা সেলের প্রাক্তন সভাপতি চিত্তরঞ্জন মণ্ডল এবং রাজ্যের প্রাক্তন রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠির জনসংযোগ আধিকারিক সুশীল ওঝা। এদিন সমর্থকসহ বিজেপিতে যোগদান করেন অল ইন্ডিয়া মতুয়া মহাসঙ্ঘের সভাপতি সুকেশ চন্দ্র চৌধুরী।

লোকসভা নির্বাচনের ফলাফলের প্রকাশের পর থেকেই রাজ্য বিজেপিতে অন্যদল থেকে যোগদানের হিড়িক লেগেছে। লোকসভা নির্বাচনের পর বিজেপি ১৮ টি আসন পেয়ে শাসক দল তৃনমূল কংগ্রেসকে কড়া চ্যালেঞ্জ করেছে। লোকসভা নির্বাচনের পরও এই যোগদানের ধরা অব্যাহত। বিভিন্ন মহল থেকেই বিজেপিতে যোগদান চলছে।

বিজেপির সদস্যতা অভিযান চলছে। রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ সোমবারই বলেছেন, সদস্যতা অভিযানে পশ্চিমবঙ্গ দেশের দ্বিতীয়স্থানে রয়েছে। এদিন, দিলীপ ঘোষের হাত থেকেই পতাকা তুলে নিয়েছেন চিত্তরঞ্জন মণ্ডল, সুশীল ওঝা এবং সুকেশ চন্দ্র চৌধুরী। দিলীপ ঘোষ এদিন বলেন, টলিউডে সিন্ডিকেটরাজ থামাতে বড়সড় আন্দোলনের ক্ষেত্র প্রস্তুত হচ্ছে। বিজেপিতে টলিউডের শিল্পীরা দলে দলে যোগ দিচ্ছেন। বিজেপি সেখানে ব্যাপক আন্দোলনে যাবে।

কিছুদিন আগেই দিল্লিতে বিজেপিতে যোগদান করেছে টলিউডের একঝাঁক শিল্পী। সেই অনুষ্ঠানে মুকুল রায় এবং দিলীপ ঘোষ দুজনেই ছিলেন। ইদানিং, বিজেপি প্রভাবিত দুটি সংগঠন তৈরি হয়েছে। টলিউড কেন্দ্রীক ওই সংগঠন গুলি কাজ শুরু করেছে। তবে ইতিমধ্যে, বিজেপি দুটো ভাবে বিভক্ত হয়ে গিয়েছে। একদল বাইরে থেকে দলে কাউকে নিয়ে আসার ঘোর বিরোধী। তারা চান জেলায় জেলায় স্ক্রিনিং কমিটির মাধ্যমে যোগদান হোক। অন্যদিকে, অন্যদল, যোগদান নিয়ে তেমন কড়াকড়ি চায় না। তাদের যুক্তি, বিজেপির সময় চলছে। দরজা খুলে দেওয়া হোক।