পারো: ডানা মেলে ড্রুক এয়ারের বিমান পারো বিমান বন্দরের উপর চক্কর কাটছিল। রানওয়ে সংলগ্ন মেডিকেল ক্যাম্পে প্রস্তুত চিকিৎসকরা। তৈরি জীবাণুনাশক। কলকাতা থেকে বিমান নামতেই উদ্বেগ বাড়ল।

কারণ, প্রতিবেশী ভারতের এই মহানগরীতে ইতিমধ্যে করোনা ভাইরাস ছড়িয়েছে। আক্রান্ত কয়েকজন। ভাইরাস সংক্রামিত সন্দেহ ভাজনদের সেখানে কোয়ারেন্টাইনে না যাওয়ার প্রবণতা দেখা দিয়েছে।

বিমানে কলকাতা থেকে ৩০ জন ভুটানি নাগরিক এসেছেন। তারা কলকাতায় বিভিন্ন কাজে ছিলেন। রবিবারই ভারত থেকে মোট ৩৯১ জন ভুটানি তাদের দেশে ফিরলেন। দিল্লি ও কলকাতা থেকে তাদের আনা হয়।

এদিকে ভুটান সরকারও প্রস্তুতি নিয়েছে আগেই। দেশ জুড়ে জারি হয়েছে বাধ্যতামূলক ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন নিয়ম। আর প্রতিবেশী ভারতে এই কোয়ারেন্টাইনে থাকার প্রবণতা ভাঙছেন অনেকেই। কলকাতায় করোনা রোগীরা নিয়ম ভেঙে প্রকাশ্যে ঘুরেছেন।

বিশ্বজোড়া মহামারি করোনাভাইরাস সংক্রমণ। চিন, ইতালি, ফ্রান্স, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ইরানে চলেছে মৃত্যু মিছিল। ভারতেও শুরু হয়েছে করোনা সংক্রমণ ছড়ানো। সর্ব মোট রবিবার পর্যন্ত ১৩ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

ভারতে করোনা সংক্রমণ ছড়াতে শুরু করায় পরেই সীমান্ত এলাকা পরিদর্শন করেন প্রধানমন্ত্রী লোটে শেরিং। তাঁর দফতর থেকে জানানো হয়েছে, ভুটানে কোনও নাগরিকের এখনও পর্যন্ত করোনা সংক্রমণ হয়নি। তবে যে দুই মার্কিন নাগরিক আক্রান্ত ছিলেন তাঁরা সুস্থ হচ্ছেন। একজনকে আগেই তাঁর দেশে পাঠানো হয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, চিনে করোনা হামলার পরেই ভুটানের গণস্বাস্থ্য কর্মসূচিতে এতটাই জোর দেওয়া হয়েছে যে করোনা এখনও থাবা বসাতে পারেনি এই দেশে।

কিন্তু ভারত থেকে ৩৯১ জন ভুটানি দেশে ফিরতেই ভয় বাড়ল ভুটানের। তবে সরকার জানিয়েছে প্রতি জনকে কড়া পরীক্ষা করে কোয়ারেন্টাইনে নেওয়া হয়েছে। সবাইকে সুস্থ করে তোলা হবে।