স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: পানশালায় জুয়ার আসরের বিরুদ্ধে শনিবার বিশেষ অভিযান চালিয়ে আরসালান রেস্তরাঁ চেনের মালিক আখতার পারভেজকে গ্রেফতার করল পুলিশ। শনিবার গভীর রাতে মধ্য কলকাতার একাধিক রেস্তরাঁয় হামলা চালায় কলকাতা পুলিশের গুন্ডাদমন শাখা। সেই অভিযানেই পার্ক সার্কাসের একটি পানশালা থেকে গ্রেফতার করা হয় আখতার পারভেজকে। উদ্ধার হয়েছে জুয়ার বোর্ডের লক্ষাধিক টাকা। এ ছাড়া অন্যান্য রেস্তরাঁয় হানা দিয়েও অন্তত ১০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে খবর।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, পার্ক সার্কাস এলাকার একটি পানশালায় ধৃতরা ‘পোকার’খেলছিল৷ দেশে ‘পোকার’ খেলা নিষিদ্ধ। সেখান থেকেই জনপ্রিয় রেস্তোরাঁ চেইন আরসালান-এর মালিক পারভেজ আখতার জুয়ার বোর্ড সমেত গ্রেফতার হন।আখতার পারভেজই ওই আসর বসিয়েছিলেন বলেও অভিযানকারী দলের একটি সূত্রে খবর। এই মুহূর্তে তাঁকে জেরা করছেন তদন্তকারীরা। এর বিরুদ্ধে আগেও শহরে একাধিকবার অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। এদিন শেক্সপিয়র সরণী এবং বেনিয়াপুকুর থানা এলাকার বেশ কয়েকটি পানশালায় হানা দেন গুন্ডাদমন শাখার অফিসারেরা।

পার্ক সার্কাসের ওই পানশালা থেকে জুয়ার বোর্ডের টাকাও উদ্ধার করেছে পুলিশ। সেই সব টাকার হিসেব এখনও সম্পূর্ণ হয়নি বলে পুলিশের একটি সূত্রে জানা গিয়েছে।

গত মাসেই এই আরসালান রেস্তরাঁর মালিকের পরিবার খবরের শিরোনামে উঠে এসেছিল। ১৭ অগস্ট শেক্সপিয়র সরণী থানার সামনে দাঁড়িয়ে থাকা একটি মার্সিডিজ গাড়িতে ধাক্কা মারে আরসালানের মালিক আখতার পারভেজের ছোট ছেলে রাঘিবের একটি জাগুয়ার গাড়ি। ঘটনায় দুই বাংলাদেশি নাগরিকের মৃত্যু হয়। ওই ঘটনায় আখতার পারভেজের দুই ছেলে আরসালান ও রাঘিব এবং তাঁর শ্যালক তথা আরসালান-রাঘিবের মামা মহম্মদ হামজা গ্রেফতার হয়েছেন। তাঁরা জেল হেফাজতে রয়েছেন। এ বার গ্রেফতার হলেন আরসালান-রাঘিবের বাবা আখতার পারভেজও।