নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: যাত্রী সুরক্ষার কথা মাথা রেখে নতুন করে দেশের ৯৮৩টি স্টেশনে বসতে চলেছে ক্লোজড সার্কিট ক্যামেরা৷ তাৎপর্যপূর্ণভাবে এর মধ্যে রয়েছে এরাজ্যের ২৬৯টি স্টেশন৷

রেল সূত্রের খবর, শুধু হাই-প্রোফাইল স্টেশনই নয়, যে স্টেশনগুলিতে যাত্রী সংখ্যা অতিরিক্ত সেখানেও বসানো হবে এই সিসিটিভি৷ উদ্দেশ্য একটা, যাত্রীদের আরও সুরক্ষিত করা৷ ফলে মহিলারা আরও সুরক্ষিত হবেন বলেই রেল কর্তাদের দাবি৷

শুধু সিসিটিভি নয়, যাত্রীপথে কোনও যাত্রী বিপদের মধ্যে পড়লে তারা তৎক্ষণাৎ যাতে রেল থেকে সহায়তা পান, সেজন্য চালু করা হচ্ছে ১৮২ টোল ফ্রি নম্বরটি৷ রেলের এক কর্তা বলেন, ‘‘স্বয়ংক্রিয় ওই নম্বরে ফোন করলে তৎক্ষণাৎ যাত্রীদের বয়ান রের্কড করে সংশ্লিষ্ট স্টেশনের আরপিএফ বা জিআরপিকে সেই তথ্য জানিয়ে দেওয়া হবে৷ ফলে খুব অল্প সময়ের মধ্যে সংশ্লিষ্ট যাত্রী রেলের সহায়তা পাবেন৷’’

রেল সূত্রের খবর, যাত্রী নিরাপত্তার স্বার্থে ইতিমধ্যেই ৩৯৪টি স্টেশনে সিসিটিভি বসানো হয়েছে। তা দিয়ে সর্বদা নজরদারি চালানো হচ্ছে। এবার আরও বেশি সংখ্যক স্টেশনকে সুরক্ষার অধীনে আনতেই এই উদ্যোগ৷ এরাজ্যের পাশাপাশি সিসিটিভি বসবে মহারাষ্ট্রের ১২৮টি স্টেশনে। রয়েছে তামিলনাড়ুর ১১১টি, উত্তরপ্রদেশের ৭৬টি, অন্ধ্রপ্রদেশের ৫৯টি, মধ্যপ্রদেশের ৪১টি স্টেশনও। এর বাইরেও একাধিক স্টেশনে এই কাজ করা হবে।
তবে উন্নতমানের সিসিটিভি বসানোর দাবি উঠেছে৷

কারণ, রেলেরই একটি সূত্রের খবর: বেশ কয়েকটি স্টেশনে থাকা সিসিটিভির মান এতটাই নিম্নমানের যে অত্যন্ত অস্পষ্ট ছবি দেখা যায়৷ ফলে সে ক্ষেত্রে সিসিটিভি থাকলেও অস্পষ্ট ছবির জেরে অপরাধীকে চিহ্নিত করার ক্ষেত্রে সমস্যা তৈরি হয়৷ তাই যাত্রীদের দাবি, উন্নতমানের সিসিটিভি বসানো হোক৷