স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: তাঁর মৃত্যুর খবর ছড়াতেই সিনেমা জগতে নেমে এসেছিল শোকের ছায়া৷ অথচ নিজের মৃত্যু সংবাদ শুনে রসিকতা করলেন প্রখ্যাত অভিনেতা ভিক্টর বন্দ্যোপাধ্যায়৷ মজার ছলে তিনি বললেন, “ভুয়ো মৃত্যু সংবাদ আমাকে আরও বেশি জনপ্রিয় করে তুলল। যদিও এটা একটা খারাপ জোক ।”

রবিবার সকাল থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়াতে শুরু করে অভিনেতা ভিক্টর বন্দ্যোপাধ্যায়ের মৃত্যুর খবর। কোথা থেকে এই খবরে উৎপত্তি তা জানা যায়নি। তবে অনেকেই অভিনেতার ছবি ফেসবুকে পোস্ট করে তাঁর আত্মার শান্তি কামনা করেন। যদিও কিছুক্ষণ পরেই জানা যায় তিনি বহাল তবিয়তেই আছেন৷ খবরটি যে ভুয়ো তা একটি ফেসবুক পোস্টে কমেন্ট করে জানান ভিক্টর বন্দ্যোপাধ্যায়ের মেয়ে কেয়া বন্দ্যোপাধ্যায় পণ্ডিত। তিনি কমেন্টে লিখেছিলেন, “এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা খবর। আমার বাবা ভালো আছেন। সুস্থ আছেন।” জানা গিয়েছে ওইসময় অসমের মোরান ব্লাইন্ড স্কুলের বাচ্চাদের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছিলেন ভিক্টর।

পড়ুন: লোকগান ছেড়ে রবি গানে বিশ্বসঙ্গীত দিবস পালন মৈনাকের

এদিন ফেসবুকে যিশু সেনগুপ্ত’র নামে থাকা একটি পেজে ভিক্টরের মৃত্যুর খবর শেয়ার হয়। যদিও সেটা অভিনেতার ভেরিফায়েড পেজ নয়। কিন্তু অনেকেই সেই খবর বিশ্বাস করতে শুরু করেন। এরপর উইকিপিডিয়াতেও তাঁর মৃত্যুর দিন ২৩ জুন লেখা হয়। ফলে খবর আরও বেশি করে ছড়াতে শুরু করে, যদিও পরে উইকিপিডিয়ায় সেই তারিখ মুছে দেওয়া হয়েছে।

বর্তমানে ৭২ বছর বয়স ভিক্টরের। সেন্ট জেভিয়ার্সের সাহিত্যের এই ছাত্র পরবর্তীকালে পড়াশোনা করেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে। সিনেমা জগতে এসে তাবড় সব পরিচালকদের সঙ্গে কাজ করেছেন তিনি। সত্যজিত রায়, মৃণাল সেন, শ্যাম বেনেগাল, জেমস আইভোরির মতো বিশ্বখ্যাত পরিচালকদের সঙ্গে কাজ করেছেন তিনি। সতরঞ্জ কে খিলাড়ি, একান্ত আপন, ঘরে বাইরে, সরকার রাজ, শ্বেতপাথরের থালা, গুন্ডে’র মতো সুপারহিট ছবিতে অভিনয় করেছেন এই বাঙালি মহাতারকা৷

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV