তিরুবনন্তপুরম: ১৬ মার্চ দুবাই থেকে কেরলের কাসারাগাদ জেলায় নিজের বাড়িতে যান এক ব্যবসায়ী। বিমানবন্দরে তাঁকে পরীক্ষা করার পর তারঁ লালারসের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। বাড়িতেই আইসোলেশনে থাকতে বলা হয় ওই ব্যক্তিকে। সেইমতো বাড়িতে পৌঁছে কোয়ারান্টিনে ছিলেন ওই ব্যক্তি। বাড়িতে পৌঁছানোর কুড়ি মিনিটের মধ্যেই ওই ব্যক্তি দ্বারা করোনা সংক্রমিত হয়ে পড়েন তাঁর মা, স্ত্রী ও বাচ্চা। কাসারাগাদের জেলাশাসক চাঞ্চল্যকর এই তথ্য জানিয়েছেন।

একইসঙ্গে জেলাশাসক সাজিথ বাবু আরও আশঙ্কা করছেন, কেরলের আরও হাজার হাজার মানুষ করোনা আক্রান্ত হতে পারেন। জেলাশাসক জানিয়েছেন, কুড়ি মিনিটের মধ্যেই ওই ব্যক্তি আরও চারজনকে করোনায় সংক্রমিত করেছেন। এমনকি ওই ব্যক্তিকে বিমানবন্দর থেকে যিনি আনতে গিয়েছিলেন পরে তাঁর রিপোর্টে ও করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে। ওই ব্যক্তির মা, স্ত্রী ও বাচ্চার শরীরে মারণ ভাইরাস ধরা পড়েছে।

আরও চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশ করে জেলাশাসক আরও জানিয়েছেন, করোনা আক্রান্ত কেরলের ওই চারজন একাধিক সামাজিক অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন। এমনকি পাড়ার ক্লাবে গিয়ে আড্ডা মেরেছিলেন। তাদেরই কয়েকজন. আর তাই কাসারাগাদ জেলার করণা আক্রান্ত ওই চারজনের থেকে হাজার হাজার মানুষের মধ্যে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার প্রবল আশঙ্কা রয়েছে।