প্রতীতি ঘোষ, ব্যারাকপুর: ফের রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়৷ সোমবার উত্তর ২৪ পরগনার কামারহাটিতে অভিনন্দন যাত্রা শেষে জানান,বেছে বেছে ভারতীয় জনতা পার্টির কর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা করা হচ্ছে৷

বিজেপি নেতা মুকুল রায় সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে বলেন, রাজ্য সরকার ভারতীয় জনতা পার্টির সমর্থকদের শুধু মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে হেনস্থা করছে৷ আমার বিরুদ্ধে ৪৯ টি মিথ্যা মামলা করেছে৷ আমার বিরুদ্ধে যে শুধু মামলা করা হয়েছে এমনটা নয়৷ বেছে বেছে ভারতীয় জনতা পার্টির কর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা করা হচ্ছে৷ মমতার সরকারের এটাই কাজ৷ আমার বিরুদ্ধে মামলা করাটা একটা উদাহরন বলতে পারেন৷

রাজ্য বিজেপির উদ্যোগে সোমবার উত্তর ২৪ পরগনা জেলায় আয়োজিত হল অভিনন্দন যাত্রা৷ ঐদিন বিরাটি মহাজাতি মোড় থেকে শুরু হয়ে অভিনন্দন যাত্রার এই মিছিলটি শেষ হয় কামারহাটি পৌরসভার অন্তর্গত রথতলা মোড়ে৷ এই মিছিলের নেতৃত্ব দেন কেন্দ্রীয় বিজেপি নেতা মুকুল রায়, বিধায়ক সব্যসাচী দত্ত, শঙ্কুদেব পান্ডা সহ অন্যান্যরা৷

মিছিল শেষে কামারহাটির বিজেপি কার্যালয়ে মুকুল রায় সাংবাদিক বৈঠক করে বলেন, “আজকের অভিনন্দন যাত্রা সফল হয়েছে৷ আমরা বিরাটি মোড় থেকে সাড়ে ৭ কিমি রাস্তা মিছিল করেছি৷ সেখানে হাজার হাজার মানুষ আমাদের মিছিলে যেমন হেঁটেছে৷ তেমনি রাস্তার পাশে হাজার হাজার মানুষ দাঁড়িয়ে আমাদের সমর্থন জানিয়েছে৷

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে মমতার সরকার মিথ্যাচার করেছে৷ মানুষ বিজেপির পক্ষেই আছে৷ মমতার সরকার আমার বিরুদ্ধে ৪৯ টা মিথ্যা মামলা করেছে৷ শুধু আমার বিরুদ্ধে নয়, অসংখ্য ভারতীয় জনতা পার্টির সমর্থকদের নামে একের পর এক মিথ্যা মামলা দিচ্ছে৷ এই সরকারের কাজ শুধু ভারতীয় জনতা পার্টির সমর্থকদের মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে হেনস্থা করা৷ আমার বিরুদ্ধে যে মিথ্যা মামলা করেছে সেটা একটা উদাহরন৷ এই বাংলায় এখন আর গনতন্ত্র নেই৷ গনতন্ত্র রক্ষার লড়াইতে নেমেছি আমরা৷ বাংলার মানুষ গনতন্ত্র ফিরিয়ে আনবেই৷

এছাড়া রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঝাড়খণ্ড সফরেরও সমালোচনা করেন মুকুল রায়৷ তিনি বলেন, “ওখানে তৃণমূল কংগ্রেস ২৪ টা আসনে প্রার্থী দিয়ে হেরেছে৷ সব প্রার্থীর জামানত জব্দ হয়েছে৷ তাও তিনি নাচতে নাচতে সেখানে গেলেন৷ কারন ওখানে এবার বিজেপির সরকার হচ্ছে না, বিজেপির বিরোধীতা করতে হবে৷ তাই গেলেন৷ এসব করে কোন লাভ হবে না৷

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব