কলকাতা ২৪X৭: ক্রিকেটবিশ্বে তাঁর পরিচিতি সীমিত ওভারের ‘ডেথ ওভার’ স্পেশালিস্ট হিসেবে৷ যাঁর ইয়র্কারই ব্যাটসম্যানদের মারণাস্ত্র৷ ২০১৮ সালে ভারতীয় ক্রিকেটের সেরা আবিষ্কার৷ রূপকথার জার্নি জসপ্রীত বুমরাহের৷

লর্ডসের ব্যালকনিতে বুমরাহ

৬ ডিসেম্বর, ১৯৯৩৷ জন্ম গুজরাতের রাজধানী শহর আমদাবাদে৷ নামী ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলে পড়াশোনা করলেও ছোটবেলা থেকেই ক্রিকেটই ছিল তাঁর ধ্যানজ্ঞান৷ ক্রিকেটের সঙ্গে প্রেমপর্ব শুরু ১৪ বছর বয়স থেকেই৷

ক্যামেরার সামনে পোজ দিয়ে খুদে বুমরাহ

প্রথমশ্রেণির ক্রিকেটে অভিষেক ২০১৩৷ গুজরাতের হয়ে বিদর্ভের বিরুদ্ধে মাঠে নামেন ডানহাতি এই পেসার৷ তবে প্রথমশ্রেণির ক্রিকেট অভিষেকের আগেই আইপিলএলে হাতেখড়ি হয় বুমরাহের৷ আইপিএলে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স শিবিরে কোচ জন রাইটের চোখে পড়া৷ রাতারাতি এমআই ফ্র্যাঞ্চাইজিতে সই৷ উড়ান শুরু বুমরাহের৷

বোনের সঙ্গে খুনখুশি খুদে বুমরাহের
২০১৩ সালে আইপিএল জয় মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের৷ চ্যাম্পিয়ন দলের সদস্য ১৯ বছরের বুমরাহ
মায়ের সঙ্গে বুমরাহ
বুমরাহের ছেলেবেলা
১৪ বছর বয়সে ক্রিকেটকে ভালোবাসা, সেই থেকে ক্রিকেটই ধ্যানজ্ঞান বুমরাহের
মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে আইপিএল অভিষেক৷ নতুন স্বপ্নে ডানা মেলা শুরু
মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের শিবিরে সচিনের থেকে টিপস নিচ্ছেন বুমরাহ
অক্ষয় প্যাটেলের সঙ্গে বুমরাহ

২০১৩ সালে আইপিএল অভিষেক৷ প্রথম ওভারে সামনে বিরাট৷ টানা দু’টি বাউন্ডারি হজম করেও দমে যায়নি তরুণ পেসার৷ পরের বলেই কোহলির উইকেট তুলে নেন৷ অভিষেক ম্যাচে পেয়েছিলেন আরও দুই উইকেট৷

বোনেদের সঙ্গে বুমরাহ

সীমিত ওভারের সাফল্য জাতীয় দলে জায়গা করে দেয়৷ দেশের জার্সিতে(ওয়ান ডে) অভিষেক ২০১৬ সালে অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে৷ কেরিয়ারের প্রথম শিকার স্টিভ স্মিথ৷ সেবছরই অ্যাডিলেডে এরপর টি-টোয়েন্টি অভিষেক৷ আন্তর্জাতিক টি-২০ ক্রিকেটে তাঁর প্রথম শিকার বিস্ফোরক বাঁ-হাতি অজি ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার৷ মোট তিন উইকেট পেয়ে কুড়ি-বিশের অভিষেক স্মরণীয় করে রাখা৷

দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের ফাঁকে চিড়িয়াখানা ঘুরে দেখছেন বুমরাহ

দীর্ঘ দু’বছর পর(২০১৮ সালে) দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে কেপটাউনে টেস্ট অভিষেক৷ লাল-বলের ক্রিকেটে প্রথম শিকার এবি ডি’ভিলিয়ার্স৷ বছর শেষে বুমরাহ’র ঝুলিতে ৪৮ উইকেট৷ সদ্যসমাপ্ত বক্সিং ডে টেস্টে ৯টি উইকেট নিয়ে ম্যাচের সেরা টিম ইন্ডিয়ার এই ডানহাতি পেসার৷ ২০১৮ টেস্ট উইকেট সংগ্রাহক হিসেবে বিশ্বের চার নম্বর বোলার বুমরাহ৷ তবে তিন ফর্ম্যাট মিলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ২০১৮ সেরা বোলার ভারতের এই তরুণ পেসার৷ ৭৮ উইকেট রয়েছে তাঁর ঝুলিতে৷