কলকাতা: প্রথাগত ক্লাসরুমের পাশাপাশি ছাত্র ছাত্রীদের সময়োপযোগী সামগ্রিক শিক্ষা দেওয়া প্রয়োজন৷ ফলে সোশ্যাল মিডিয়া, অনলাইন মিডিয়াও ইত্যাদিকে শিক্ষার আওতায় আনা দরকার। তাহলে সব দিক দিয়েই উপযুক্ত হয়ে উঠবে পড়ুয়ারা। বেঙ্গল চেম্বার অফ কমার্স আয়োজিত বার্ষিক শিক্ষা সংক্রান্ত আলোচনাসভায় এমন বার্তাই উঠে এল৷

শুক্রবার আয়োজিত ওই আলোচনাসভার বিষয় ছিল আগামী দিনের শিক্ষাটা সামগ্রিক শিক্ষা হতে হবে। এই বিষয়ে রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর বক্তব্য, ‌শিক্ষাকে যদি সামান্য কয়েকটি দিকে আটকে রাখা হয়, তাহলে সমাজের সম্পূর্ণ বিকাশ হয় না। সমাজের পরিবর্তনের সঙ্গে তাল রেখে শিক্ষারও পরিবর্তন প্রয়োজন।

পড়ুন: ডাক্তার প্রার্থীর সমর্থনে রাজ্যে ফের প্রচারে আসছেন মোদী

দ্য বেঙ্গল চেম্বারের শিক্ষা বিভাগের কো–চেয়ারপার্সন সত্যম রায়চৌধুরী জানান, ‌একাধিক বিষয়ে মানব মনের দক্ষতা বাড়ানোর পাশাপাশি সমস্যার মুখোমুখি হলে নতুন কোনও সমাধান সূত্র বার করাটাই শিক্ষার প্রকৃত লক্ষ্য। আর সেটাই শিক্ষকদের মাথায় রাখতে হবে পড়ুয়াদের শিক্ষা দেওয়ার সময়৷ অর্থাৎ শুধুমাত্র প্রযুক্তিনির্ভর না হয়ে উদ্ভাবক এবং কিছু সৃষ্টি করার ক্ষমতা অর্জন করতে পারে।

এরা ছাড়াও আর বেশ কয়েকজন শিক্ষাবিদ এদিনের সভায় তাদের বক্তব্য পেশ করেন৷