জাতীয় পরীক্ষা বোর্ড(এনবিএ) ফরিজেন মিডিয়া গ্রাজুয়েট পরীক্ষা আয়োজন করতে চলেছে চলতি বছরের জুন মাসে। এই পরীক্ষার জন্য ইতিমধ্যে রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া শুরু করা হয়েছে এনবিএ তরফে। ১৬ এপ্রিল বেলা ৩ টে থেকে সমস্ত পরীক্ষার্থীদের জন্য অফিশিয়াল ওয়েবসাইট nbe.edu.in রেজিস্ট্রেশন ফর্মটি প্রকাশ করা হয়েছে। এর পাশাপাশি এনবিই জানিয়েছে এই ফর্ম আগ্রহী পরীক্ষার্থীরা পূরণ করতে পারবে আগামী মে মাসের ৬ তারিখ পর্যন্ত।

এনবিএ এই ফরিজেন মিডিয়া গ্রাজুয়েট পরীক্ষা আগামী জুন মাসের ১৮ তারিখ করতে চলেছে। বর্তমান পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে কম্পিউটারের ভিত্তিতে অনলাইনে পরীক্ষা নেওয়া হবে। পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা করাও হতে পারে এই একই মাসে। এফএমজিই পরীক্ষার জন্য মূল্য রাখা হয়েছে ৭০৮০ টাকা।

অনেকেই এফএমজিই পরীক্ষা দিতে আগ্রহী। সকল আগ্রহী ব্যক্তিকে খেয়াল রাখতে হবে যাতে ফর্ম ফিলাপের পর্ব ৬ মে অতিক্রম করে না যায়। তার কারণ পরীক্ষার জন্য রেজিস্ট্রেশন করবার বৈধতা ১৬ মার্চ থকে ৬ মে পর্যন্ত । এফএমজিই পরীক্ষার জন্য ছাত্রদের সুবিধার কথা মাথায় রেখে কী ভাবে ফর্ম রেজিস্টার করতে হবে তার পদক্ষেপগুলি এই প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হল।

প্রথমে প্রতিটা আগ্রহী এফএমজিই পরীক্ষার্থীদের এনবিএ অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে যার ঠিকানা neb.edu.in। এর পরের পর্বে হোমপেজে থাকা ‘FMGE’ অপশনে ক্লিক করতে হবে পরীক্ষার্থীদের। নতুন প্রার্থী হলে এই ক্ষেত্রে নিউ রেজিস্ট্রেশন-এ ক্লিক করে নিজের সমস্ত পরিচিতি পত্রের বিষয় উল্লেখ করতে হবে। উল্লেখ করতে হবে তাদের নাম, ফোন নম্বর, ইমেল আইডি, ঠিকানার মতো বিষয়গুলো। এগুলি দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করলে এই পর্ব শেষ হবে। এর পাশাপাশি লগইন করা পরীক্ষার্থীর রেজিস্ট্রার মেলে আইডি পাসওয়ার্ডের মতো গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলি পাঠিয়ে দেওয়া হবে।

রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবার পর মেলে আসা আইডি এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে এফএমজিই পোর্টাল থেকে পরীক্ষার ফর্মে নিজের সমস্ত তথ্য, শিক্ষাগত যোগ্যতা সঠিক ভবে প্রেরণ করতে হবে। আর পরবর্তী ধাপে ক্রেডিট কার্ড কিংবা ডেভিড কার্ড বা নেট ব্যাংকিং এর সাহায্য টাকা মিটিয়ে দিলে পরীক্ষার্থী তার ফর্মটি ডাউনলোড করবার অনুমতি পাবে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.