স্টাফ রিপোর্টার, বেঙ্গালুরু: রাস্তায় পড়ে থাকা অসুস্থ সদ্যজাতকে হাসপাতালে নিয়ে গেল পুলিশ৷ সেখানে তাঁর প্রাণ বাঁচাতে থানারই এক মহিলা কনস্টেবল নিজের দুগ্ধ পান করালেন৷

মঙ্গলবার সকালে পুলিশের এমনই মানবিকতার সাক্ষী থাকল বেঙ্গালুরু৷ পুলিশের তরফেই যোগাযোগ করা হয় প্রশাসনের সঙ্গে৷ এরপর সরকারি তত্ত্বাবধানে তাঁকে রাখা হয় একটি অনাথ আশ্রমে৷ তাৎপর্যপূর্ণভাবে কর্ণাটকের নতুন মুখ্যমন্ত্রী এইচডি কুমারস্বামীর নামেই শিশুটির নাম কুমারস্বামী রাখা হয়েছে৷

সংবাদ সংস্থা সূত্রের খবর, বেঙ্গালুরুর একটি বহুতলের নিচে কে বা কারা একটি প্লাস্টিক ব্যাগে করে সদ্যজাতটিকে ফেলে দিয়ে যায়৷ শিশুটির চিৎকারে বিষয়টি নজরে আসে

বেঙ্গালুরু পুলিশের সহকারি সাব-ইন্সপেক্টর নাগেশ্বর রায়৷ রক্তাক্ত শিশুটিকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যান৷ খবর পেয়ে তড়িঘড়ি সেখানে আসেন থানার মহিলা কনস্টেবেল অর্চনা৷ সদ্য মাতৃত্বকালীন ছুটি সেরে তিনি কাজে যোগ দিয়েছেন৷ বাড়িতে রয়েছে তিন মাসের এক সন্তান৷ চিকিৎসকদের পরামর্শে তিনি শিশুটিকে দুগ্ধ পান করান৷ ফলে প্রাণে রক্ষে পায় শিশুটি৷

ফলে পুলিশি তৎপরতায় যোগাযোগ করা হয় প্রশাসনের কর্তাদের সঙ্গে৷ এরপরই সরকারি তত্ত্বাবধানে শিশুটিকে রাখার সিদ্ধান্ত হয়৷ সেই মতো প্রাথমিক চিকিৎসার পর শিশুটিকে ব্যাঙ্গালুরুর কাছে ‘শিশু মন্দির’ নামে একটি অনাথ আশ্রমে রাখা হয়েছে৷