স্টাফ রিপোর্টার, কোচবিহার: আগামী সপ্তাহের শুরুতেই জেলায় আসবে চার সদস্যের মেডিক্যাল কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়ার একটি প্রতিনিধি দল৷ খতিয়ে দেখা হবে কোচবিহার সরকারি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের পরিকাঠামো৷ এই প্রতিনিধি দল নতুন মেডিকেল কলেজের পরিকাঠামো দেখে সন্তোষ প্রকাশ করলেই আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকে এই মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পঠনপাঠন শুরু করা হবে। এই জন্য ইতিমধ্যেই সাজানো শুরু হয়েছে কোচবিহার এমজেএন হাসপাতালকে৷ কারণ এই হাসপাতালকেই মেডিক্যাল কলেজে উন্নীত করা হয়েছে।

গত ২৯ অক্টোবর সরকারি নির্দেশ বলে কোচবিহার এমজেএন হাসপাতালকে কোচবিহার সরকারি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে উন্নীত করা হয়েছে। আগামী শিক্ষা বর্ষ থেকেই এখানে পঠনপাঠন শুরুর পরিকল্পনা নিয়েছে সরকার। তার আগে এই প্রতিনিধি দলের পরিদর্শন বেশ গুরুত্বপূর্ণ৷ কারণ এই প্রতিনিধি দলের বিবেচনার উপর নির্ভর করছে আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকে এই মেডিকেল কলেজে পঠনপাঠন শুরু হওয়া। ইতিমধ্যে কোচবিহার এমজেএন হাসপাতালে ডাক্তারের সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে, শিক্ষক ও অশিক্ষক কর্মচারীও বেড়েছে।

আরও পড়ুন : অনুব্রতর ‘ছুঁচোর কেত্তন’ বুঝে নেওয়ার হুমকি দিলীপের

বর্তমানে ৫০ জন নতুন ডাক্তার যোগদান করেছে এই হাসপাতালে৷ সব মিলিয়ে এই মেডিকেল কলেজে সদস্যদের সংখ্যা প্রায় ১৩০। সূত্রের খবর, মেডিকেল কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়ার অনুমোদন ৩০০ টি বেড হলেই পাওয়া যায়৷ সেক্ষেত্রে এমজেএন হাসপাতালে বেড রয়েছে ৫০০ টি। এছাড়াও বর্তমানে বেডগুলি যতটা পাশাপাশি রয়েছে সেই দৈর্ঘ্য বাড়ানো হচ্ছে। এর পাশাপাশি কোচবিহার এমজেএন হাসপাতালের অন্তঃবিভাগ ও বহিঃবিভাগের মাঝে রাস্তার উপর যেসব অবৈধ দোকানগুলি রয়েছে তাও সরিয়ে দেওয়ার চিন্তা ভাবনা হচ্ছে।

কোচবিহার সরকারি মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের ভাইস প্রিন্সিপ্যাল ডাক্তার রাজীব প্রসাদ বলেন, ‘‘মেডিকেল কাউন্সিল অব ইন্ডিয়ার পরিদর্শনের জন্য আমরা প্রস্তুত রয়েছি৷ যা পরিকাঠামো তৈরি করা হয়েছে তাতে আশা করছি এই পরিকাঠামো তাঁদের পছন্দ হবে৷ হিসেব মতো আগামী বছর থেকেই পঠনপাঠন শুরু করা যাবে৷’’