কলকাতা: ফের রাজ্য স্বাস্থ্য কমিশনের কাঠগড়ায় একটি বেসরকারি হাসপাতাল৷ এবার ১৫ ঘণ্টার চিকিৎসা খরচ ১ লক্ষ ১৫ হাজার টাকা৷ অভিযোগের ভিত্তিতে ডিসান হাসপাতালকে বাড়তি টাকা ফেরতের নির্দেশ দিল কমিশন৷ এর আগে এক রোগী মৃত্যুর ঘটনায় ওই বেসরকারি হাসপাতালকে ১০ লক্ষ টাকা জরিমানা করেছিল কমিশন৷

করোনা আক্রান্ত হয়ে বাইপাসের কাছে ডিসান হাসপাতালে ভর্তি হন হাওড়ার এক ব্যক্তি৷ অভিযোগ, মাত্র ১৫ ঘণ্টার চিকিৎসায় ১ লক্ষ ১৫ হাজার টাকা বিল করেছে৷ এরপরই অতিরিক্ত বিলের অভিযোগে স্বাস্থ্য কমিশনের দ্বারস্থ হন ওই ব্যক্তি৷

তদন্তের ভিত্তিতে স্বাস্থ্য কমিশন ডিসান হাসপাতালকে বাড়তি টাকা ফেরতের নির্দেশ দিয়েছেন৷ ওই বেসরকারি হাসপাতালকে প্রায় ৬৫ হাজার টাকা ফেরতের নির্দেশ দিয়েছে কমিশন৷

এর আগে রোগী মৃত্যুর ঘটনায় ডিসান হাসপাতালকে ১০ লক্ষ টাকা জরিমানা করে রাজ্যের স্বাস্থ্য কমিশন।সেইসঙ্গে কমিশন জানিয়েছিল, মামলার নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত রোগীদের থেকে কোনও অগ্রিম নিতে পারবে না হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

সেই সময় কমিশনের চেয়ারম্যান অসীমকুমার বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, ডিসান হাসপাতালের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ গুরুতর৷ আগেই হাসপাতালের লাইসেন্স সাসপেন্ড হওয়া উচিত ছিল।কিন্তু অনেক রোগী চিকিৎসাধীন তাই সাসপেন্ড করা হল না৷

প্রাথমিক পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী কমিশনের জানিয়েছে, সেদিন তমলুকের বাসিন্দা লায়লা বিবিকে অ্যাম্বুল্যান্সে মৃত অবস্থায় ডিসানে আনা হয়নি। মৃত্যুর আগের মুহূর্ত পর্যন্তও হাসপাতালে থেকে কোনও পরিষেবা পাননি রোগী। ঠিক কী হয়েছিল ? জানা গিয়েছে, মৃত ওই বৃদ্ধা পূর্ব মেদিনীপুরের তমলুকের বাসিন্দা।

বেশ কিছুদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন তাঁর স্বামী। তাই চিকিৎসা করাতে কলকাতা এসেছিলেন দম্পতি। এখানে এসে মৃত্যু হয় ওই বৃদ্ধার স্বামীর। এরপর অসুস্থ হয়ে পড়েন বৃ্দ্ধাও। আশঙ্কাজনক অবস্থায় পার্ক সার্কাসের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভরতি করা হয় তাঁকে।

সেখানে তাঁর করোনা পরীক্ষা করা হলে জানা যায়, তিনি আক্রান্ত। কিন্তু করোনা রোগীদের জন্য কোনও ব্যবস্থা ছিল না ওই হাসপাতালে। সেই কারণেই রোগীকে অন্যত্র স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত নেয় পরিবার। সেই মতো ওই করোনা আক্রান্তকে কলকাতার ডিসান হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

পরিবারের অভিযোগ ছিল, ভরতির জন্য হাসপাতালের তরফে ৩ লক্ষ টাকা দাবি করা হয়। কিন্তু, সেই মুহূর্তে পুরো টাকা ছিল না তাঁদের কাছে। শেষে ২ লক্ষ ৮০ টাকা জমা দিয়েছিলেন তাঁরা। এই টালবাহানা শেষে দেখা যায় অ্যাম্বুল্যান্সেই মৃত্যু হয়েছে ওই বৃদ্ধার। হাসপাতালের দাবি ছিল, মৃত অবস্থাতেই ওই বৃদ্ধাকে আনা হয়েছিল।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।