স্টাফ রিপোর্টার, বাঁকুড়া: তৃণমূলের এক বুথ কমিটির সভাপতিকে মারধরের অভিযোগ উঠল বিজেপির বিরুদ্ধে। লাঠি, রড দিয়ে বেধড়ক মারধরের পাশাপাশি তার মাথায় মদের বোতল ভাঙা হয় বলেও অভিযোগ। ঘটনাটি ঘটেছে বাঁকুড়ার সদর থানার ঝরিয়া গ্রামে। ওই তৃণমূল কর্মীর নাম বুদ্ধদেব ঘোষ৷ পেশায় রেডিমেড কাপড় ব্যবসায়ী৷

বুদ্ধবাবুর অভিযোগ, বৃহস্পতিবার রাতে ঝড় বৃষ্টি শেষে দোকানের কিছু জিনিসপত্র কেনার জন্য এদিন নিজের গ্রাম ঝরিয়া থেকে রাজগ্রাম বাজার যাচ্ছিল৷ সেই সময় পথে কয়েকজন পরিচিত বিজেপি কর্মী তাকে ঘিরে ধরে মারধোর করে। এমনকি ওই সময় নগদ তিন হাজার টাকা ও একটি সোনার আংটি খোয়া গিয়েছে বলেও তার অভিযোগ। এলাকায় সক্রিয়ভাবে তৃণমূল করার জন্যই বিজেপি পরিকল্পিতভাবে এই আক্রমণ করেছে বলে তিনি মনে করেন।

বিজেপি কর্মীরা পরিকল্পিতভাবে তাকে প্রাণে মেরে ফেলতে চেয়েছিল বলেও বুদ্ধবাবুর অভিযোগ। এই ঘটনার পর এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়েছে। প্রহৃত ওই তৃণমূল নেতা বুথ সভাপতির তরফে এই ঘটনার অভিযোগ জানিয়ে বাঁকুড়া সদর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে৷ বর্তমানে গুরুতর আহত অবস্থায় বুদ্ধদেব ঘোষ বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভরতি রয়েছেন।

অন্যদিকে, বিজেপির পক্ষ থেকে তাদের বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে। স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্বের পালটা দাবি তৃণমূলের গোষ্ঠী দ্বন্দেই এই ঘটনা ঘটেছে। তাদের নামে মিথ্যে অভিযোগ করা হচ্ছে বলেও তাদের দাবি।