ফাইল ছবি। প্রতিবেদনের সঙ্গে কোনও যোগ নেই।

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: রাজ্যে চলছে তৃতীয় দফার ভোট৷ গণতন্ত্রের এই উৎসবে বালুরঘাটের একটি পরিবারে নেমে এল শোকের ছায়া৷ এক ভোট কর্মীর আত্মহত্যায় রিপোর্ট তলব করেছে নির্বাচন কমিশন৷

স্থানীয় সূত্রে খবর, বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের বুনিয়াদপুর শ্যামাপল্লীর বাসিন্দা বাবুলাল মুর্মু৷ স্থানীয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একজন শিক্ষক৷ তাই ভোটে তাকে ভোট কর্মী হিসেবে নিয়োগ করা হয়৷ ভোটের দিন তিনি শ্যামাপল্লী এলাকায় রিজার্ভে ছিলেন৷ তারই মধ্যে খবর আসে বাবুলাল আত্মঘাতী হয়েছেন৷ খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে৷ এবং ময়নাতদন্তের জন্য বালুরঘাট হাসপাতালে পাঠানো হয়। এই ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে৷

বাবুলাল মুর্মুর স্ত্রী শিখা হাঁসদার অভিযোগ, ভোটের আগের দিন অর্থাৎ সোমবার রাত থেকেই বিভিন্ন এলাকা থেকে বুথে বুথে ঝামেলার খবর আসতে থাকে৷ সেই খবরে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন আমার স্বামী। আতঙ্ক থেকেই আত্মহত্যা করেছেন৷ অন্যদিকে এরপরই নড়েচড়ে পরে প্রশাসন ও নির্বাচন কমিশন৷ নিয়ম অনুযায়ী,ভোটের দ্বায়িত্বে থাকা প্রত্যেক ভোট কর্মী নির্বাচন কমিশনের আওতায় থাকে৷ বাদ যান না রিজার্ভে থাকা ভোট কর্মীরাও৷

মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক দফতর সূত্রে খবর, ভোট কর্মীর অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় স্থানীয় প্রশাসনের কাছ থেকে রিপোর্ট চেয়ে পাঠানো হয়েছে৷ রিপোর্ট আসার পরই বলা যাবে কেন এমন ঘটনা ঘটল৷ প্রকৃত ঘটনা কী ছিল৷