স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: এবারের লোকসভা ভোটে রাজ্য সরকার ভোটের কাজে ব্যবহার করতে পারবে না সিভিক ভলান্টিয়ারদের৷ জাতীয় নির্বাচন কমিশনের কাছ থেকে এমনই নির্দেশ এসে পৌঁছেছে তাদের কাছে৷ সদ্য সমাপ্ত পঞ্চায়েত নির্বাচনে বুথে বুথে দাপিয়ে বেড়াতে দেখা গিয়েছে সিভিক ভলান্টিয়ারদের৷ এছাড়াও বিভিন্ন সময় তাদের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ উঠেছে৷ রাজ্যে লক্ষাধিক সিভিক ভলান্টিয়ার রয়েছে৷

বর্তমানে সিভিক ভলান্টিয়াররা ট্রাফিক সামলানো থেকে শুরু করে থানার অনেক কাজই সামলাচ্ছেন৷ তাদেরকে ব্যবহার করা হচ্ছে অন্যান্য কাজেও৷ সদ্য সমাপ্ত পঞ্চায়েত নির্বাচনে মমতা সরকার তাদেরকে নির্বাচনের কাজে ব্যবহার করেছিলেন৷ রাজ্যের প্রতিটি বুথে রাজ্য পুলিশের পাশাপাশি মোতায়েন ছিল সিভিক ভলান্টিয়ার৷ সে সময় বিরোধীরা অভিযোগ করেছিল,সিভিক ভলান্টিয়ার বুথে বুথে তৃণমূল ক্যাটারদের মত দাদাগিরি করছে৷

প্রতীকী ছবি

নির্বাচন কমিশন ভোটের দিন ঘোষনার আগেই চলতি বছরে জানুয়ারি মাসে বিজেপি নেতা মুকুল রায় বলেছিলেন, “জেলায় জেলায় প্রচুর সিভিক ভলান্টিয়ার রয়েছেন। গরিব ঘরের ছেলে, কাজ করে খাচ্ছেন, সেটা নিয়ে কোনও আপত্তি নেই। কিন্তু তোমাদের তো বাবা নির্বাচন কমিশন ভোটের দিন থাকতে দেবে না।”লোকসভা ভোটের আগে রাজ্য সরকার থেকে কমিশনের কাছে একটি তালিকা পাঠাতে হবে৷ সেখানে পুলিশ, হোমগার্ডদের নাম থাকবে৷ রাজ্য সরকার কোনও ভাবেই তো সিভিক ভলান্টিয়ারের নাম দিতে পারবে না৷

কার্যত মুকুল রায়ের কথাই ঠিক হল, এবারের লোকসভা ভোটে নির্বাচনের কাজে থাকতে পারবে না সিভিক ভলান্টিয়াররা৷ ভোটের সময় বুথে থাকবে আধা সামরিক বাহিনীর জওয়ানরা৷