স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: করোনা সংক্রমণ ক্রমশ বাড়ছে। যার জেরে কলকাতা থেকে ছেড়ে যাওয়া সমস্ত দুরপাল্লার বাসে এবার থার্মাল স্ক্রিনিং বাধ্যতামূলক করল পরিবহণ নিগম। বিশেষ করে উত্তরবঙ্গগামী সমস্ত বাসে বাধ্যতামূলক করা হয়েছে থার্মাল চেকিং।

ইতিমধ্যেই এসপ্ল্যানেড ডিপোতে কর্মরত যারা তাদের এই বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। বাস ছাড়ার ৩০ মিনিট আগে যাত্রীদের বাসে তোলা হচ্ছে। তার আগে বাস পুরোপুরি ভাবে স্যানিটাইজ করা হচ্ছে। কন্ডাক্টর বা ডিপো কর্মীরাই থার্মাল স্ক্যান করছেন।

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেই দূর্গাপুরের এক ব্যক্তির অভিযোগ ছিল, তিনি দক্ষিণবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ সংস্থার বাসে করে কলকাতা থেকে ফিরেছেন। করোনা পজিটিভ হওয়া সত্ত্বেও তিনি বাসে চেপেছেন। কিন্তু বাসে ওঠার আগে কোনও পরীক্ষা করা হয়নি। এই ঘটনার পরই থার্মাল স্ক্রিনিং বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

উত্তরবঙ্গ পরিবহন দপ্তরের আধিকারিক অনিল অধিকারী জানান, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে এক একটি বাসে ২৫ জন করে যাত্রী তোলা হচ্ছে। তার আগে অবশ্যই যাত্রীদের থার্মাল স্ক্রিনিং করিয়ে নেওয়া হচ্ছে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাসের চালক ও কন্ডাকটাররা পিপিই পরে যাত্রীদের পরিষেবা দিচ্ছেন।

প্রসঙ্গত, শনিবারের স্বাস্থ্য বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় শুধুমাত্র কলকাতাতেই আক্রান্ত হয়েছেন ৭১৪ জন। গোটা রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ২৫৮৯। রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের বুলেটিন অনুযায়ী ১ অগাস্ট পর্যন্ত রাজ্যে করোনা আক্রান্ত মোট ৭২,৭৭৭ জন। মৃত্যু হয়েছে ১,৬২৯ জনের। সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২০,৬৩০।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও