ব্যাংকক: অপেক্ষা আর অপেক্ষা৷ কখন তাদের দেখা মিলবে৷ কখন তারা গুহার অন্ধকার থেকে বাইরের আলোয় ফিরবে৷ প্রতি মুহূর্তে তৈরি হচ্ছে জটিল পরিস্থিতি৷ আর তাকে ভেদ করেই পাতাল প্রবেশ করছেন উদ্ধারকারীরা৷ ব্যাংকক পোস্ট জানাচ্ছে, শুরু হল বহু প্রতীক্ষিত উদ্ধার অভিযানের আরও এক পর্ব৷ যদিও এই অভিযান কতদিন চলবে তাও পরিষ্কার হয়নি৷ দুর্যোগের মধ্যে গুহায় আটকে পড়া ১২ খুদে ফুটবলার ও তাদের কোচকে বাঁচাতে মরিয়া থাই সরকার৷

উদ্ধারকারী দল, ডুবুরি, চিকিৎসক ও নিরাপত্তা বাহিনীকে রেখে বাকি সবাইকে ঘটনাস্থল থেকে সরিয়ে নেয়া হয়। তেরজন বিদেশি ডুবুরী ছাড়াও থাই নৌ বাহিনীর আরও পাঁচজন অভিযানে অংশ নিচ্ছেন।

বিবিসি জানাচ্ছে, থাইল্যান্ডের উত্তরাঞ্চলে গুহায় প্রায় দু সপ্তাহ ধরে আটকে থাকা ১২ কিশোর ফুটবলার ও তাদের কোচকে উদ্ধারে অভিযান শুরু হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে প্রথম দলটিকে বের করে আনতে প্রায় ১০ ঘণ্টা সময় লাগবে। রবিবার রাতের দিকে কয়েকজনকে বের করে আনা সম্ভব হবে৷ গত ২৩শে জুন কিশোর ফুটবলার ও তাদের কোচ গুহার ভেতরে যাওয়ার পর আর বের হতে পারেননি।

এরপর প্রবল বৃষ্টিতে গুহার মুখ জল জমে বন্ধ হয়ে যায়৷ তারপর থেকেই গুহাবাসী হয়ে রয়েছে খুদে ফুটবলাররা৷ তাদের উদ্ধার অভিযান ঘিরে উৎকণ্ঠার প্রহর পার করছেন আত্মীয়রা৷ চিন্তিত থাই সরকার উদ্ধার অভিযানে নামিয়েছে সেনা৷ এক উদ্ধারকারীর মৃত্যু ঘটেছে৷ এদিকে বিশ্বজুড়ে ফুটবল উন্মাদনা৷ বিশ্বকাপের সেই আসর দেখাই হল না আটকে পড়া খুদে ফুটবলারদের৷ তারা সুস্থ হয়ে ফিরে আসুক এটাই চাইছেন সবাই৷

থাইল্যান্ডের সেনাবাহিনীর উদ্ধার অভিযান বিশেষজ্ঞদের ধারণা, অভিযান শেষ হতে তিন থেকে চারদিন সময় লাগতে পারে আবহাওয়ার উপরেই সব নির্ভর করছে৷