শ্রীনগর: ভূ-স্বর্গে ভয়াবহ আক্রমণ চালাতে পাকিস্তানের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে জম্মু ও কাশ্মীরের জঙ্গিরা যার জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে নতুন প্রযুক্তির, বুধবার নাগরোটা জেলায় এনকাউন্টারে তিনজন জঈশ-ই-মহম্মদের জঙ্গিকে নিকেশ করার পরেই প্রকাশ্যে এসেছে এমন তথ্য।

সূত্রের খবর, এনকাউন্টারের পরে তল্লাশি অভিযানে নিরাপত্তাবাহিনী ইয়ুইয়ু স্টক মার্কেট সিস্টেম (YSMS) এবং আইকম রেডিও (icom) সেট যার সাহায্যে জঈশ জঙ্গিরা পাকিস্তানের মাস্টারমাইণ্ডদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে।

সেনা সূত্রে জানা গিয়েছে, এই প্রযুক্তির ব্যবহার করে পাক অধিকৃত কাশ্মীরের আলফা-৩ যা জঈশ-ই-মহম্মদের মেন যোগাযোগ কেন্দ্র হিসেবেই পরিচিত। আলট্রা হাই ফ্রিকোয়েন্সি (UHF) রেডিও সিগন্যাল ব্যবহার করে এই যোগাযোগ স্থাপন করা হয়। আলট্রা হাই ফ্রিকোয়েন্সি এনক্রিপটেড সিগন্যাল পাঠায় যা সিম ছাড়া যেকোনও মোবাইলেই ব্যবহার করা সম্ভব।

যদিও এটা প্রথমবার নয় যেখানে নিরাপত্তাবাহিনী এইরকম তথ্য পেয়েছে। ২০১৫ সালে, একজন পাকিস্তানি জঙ্গি সাজ্জাদ আহমেদ যাকে উত্তর কাশ্মীরের রাফিয়াবাদে আটক করা হয়েছিল সেখানে জিজ্ঞাসাবাদে জানা গিয়েছে একই মেথড ব্যবহার করা হয়েছে। সেইসময় একটি ওয়্যারলেস ফোন ব্যবহার করা হয়েছে যেখানে YSMS সিস্টেম ব্যবহার করা হয়েছে।

২০১৯ সালের ভয়াবহ পুলওয়ামা হামলাতেও তদন্ত করে দেখা গিয়েছে এই একই প্রযুক্তির ব্যবহার করা হয়েছে।

জম্মু ও কাশ্মীরের DGP দিলবাগ সিং জানিয়েছেন, বুধবার যে জঙ্গিরা মারা গিয়েছে তাঁদের থেকে ইয়ুইয়ু স্টক মার্কেট সিস্টেম এবং আইকম রেডিও উদ্ধার করা হয়েছে।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা