জম্মু-কাশ্মীর: ফের অশান্ত কাশ্মীর। এবার পুলিশ পোস্টের ওপর হামলা চালালো জঙ্গি বাহিনী। শুক্রবার ওল্ড শ্রীনগর শহরের নুরবাগ এলাকায় এই হামলা চালানো হয়।

ঘটনায় এক সিআরপিএফ জওয়ান আহত হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। তাঁর দু’পায়ে এবং চোখে আঘাত লেগেছে। বর্তমানে ওই জওয়ান হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

অন্যদিকে চলতি সপ্তাহেরই মঙ্গলবার পুলওয়ামা জেলার অবন্তীপোরা জেলায় এনকাউন্টারের ঘটনা ঘটে। খতম হয় এক জঙ্গি। তাঁর আগের দিন পাক জঙ্গিদের খোঁজে তল্লাশি চালানোর সময় ঘটনাস্থলেই শহীদ হন এক পুলিশ আধিকারিক। পাশাপাশি আহত হন এক সেনা জওয়ানও। পরে হাসপাতালে মৃত্যু হয় ওই জওয়ানের।

উল্লেখ্য, মাত্র কদিন আগেই ভারতীয় সেনার হাতে আসে এক চাঞ্চল্যকর রিপোর্ট। গোয়েন্দা রিপোর্ট অনুযায়ী, পাক জঙ্গিরা ভারতের সীমান্তবর্তী গ্রামগুলিতে আইডি বিস্ফোরণ ঘটাতে সচেষ্ট। গোয়েন্দা সংস্থার দাবি, এলওসি-তে এ কারণে ক্যামেরা এবং সিগন্যাল টাওয়ার বসিয়েছে পাকিস্তান। ওই টাওয়ার ও ক্যামেরা মাধ্যমে পাকিস্তানি সেনা ভারতীয় সেনাবাহিনীর কার্যকলাপে লক্ষ্য রাখছে। জঙ্গি দমনে ভারতীয় সেনাদের তৎপরতার ওপর নজর রাখতেই ওই টাওয়ার ও ক্যামেরাগুলি ব্যবহার করা হচ্ছে বলেও দাবি করা হয়েছে গোয়েন্দা সংস্থার রিপোর্টে।

গোয়েন্দা রিপোর্ট অনুসারে, এলওসিতে ১৮ টি টাওয়ার বসানো হয়েছে। পাশাপাশি যে ক্যামেরাগুলি বসানো হয়েছে সেগুলিও বেশ শক্তিশালী ও উচ্চপ্রযুক্তি সম্পন্ন। গোয়েন্দা রিপোর্ট আরও জানাচ্ছে যে, ২৬ জানুয়ারির আগে সীমান্তকে অশান্ত করতে চাইছে জঙ্গিরা। তাই প্রজাতন্ত্র দিবসের আগে একাধিক জায়গায় আইডি বিস্ফোরণ ঘটাতে পারে তাঁরা।