ইসলামাবাদ: ফের পাকিস্তানে জঙ্গি হামলা। দক্ষিণ-পশ্চিম বেলুচিস্তান প্রদেশে একটি গাড়ির কনভয়ে হামলা চালাল জঙ্গিরা। করাচি থেকে ২৫০ কিমি দূরে বৃহস্পতিবার এই হামলা চালানো হয়।

ভয়াবহ এই হামলায় ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে ৭ জন সেনাবাহিনীতে কর্মরত ছিলেন। জানা গিয়েছে, ওই গাড়ির কনভয়ে করে গাদার থেকে তেল ও গ্যাস বিভাগের কর্মীদের করাচি নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল, সেসময়ই হামলা চালায় সশস্ত্র জঙ্গিরা।

এই হামলার তীব্র নিন্দা করে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান কড়া প্রতিক্রিয়া দেন। জঙ্গিরা প্রথম হামলা চালালেও পালটা জবাব দেয় নিরাপত্তারক্ষীরা। উভয় পক্ষের মধ্যে ভারী গোলাগুলি চলে বলে খবর। তবে একটি সূত্র জানাচ্ছে, ৭-৮ জন হামলাকারী রকেট লঞ্চারসহ অন্য ভারি অস্ত্র নিয়ে ওই কনভয়ের ওপর হামলা চালায়। তবে জঙ্গিদের কাউকে ধরা সম্ভব হয়নি।

আরও পড়ুন – শুধু কলকাতায় অ্যাক্টিভ আক্রান্ত ছাড়াল ৭ হাজার, ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি

এক পাকিস্তানি আধিকারিক জানিয়েছেন, এটি একেবারেই পূর্ব পরিকল্পিত হামলা। আগে থেকেই জঙ্গিদের এই কনভয়ের ব্যাপারে খবর ছিল। তাই তাঁরা আগে থেকেই গাড়িতে হামলার জন্য অপেক্ষা করছিল। তবে নিরাপত্তারক্ষীরা নিজেদের জীবন দিয়ে ওই কনভয়কে “নিরাপদ স্থানে” সরিয়ে নিতে সক্ষম হয়।

যদিও এখনও কোনও সংগঠন এই হামলার দায় স্বীকার করেনি। তবে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনাকালে বিনোদন দুনিয়ায় কী পরিবর্তন? জানাচ্ছেন, চলচ্চিত্র সমালোচক রত্নোত্তমা সেনগুপ্ত I