জুবা: ঘরের চারিদিকে সেনাবাহিনী৷ ঘিরে নেওয়া হয়েছে প্রাক্তন সেনা প্রধানের বাসস্থান৷ সেনার নির্দেশ শেষপর্যন্ত অস্ত্র নামিয়ে রাখল সেনাপ্রধানের দেহরক্ষীরা৷ পরিস্থিতি যেরকম, তাতে আবারও একটা রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের দিকে মোড় নিতে চলেছে দুনিয়ার নবীনতম দেশ দক্ষিণ সুদান৷

সংবাদ সংস্থা এএফপি, রয়টার্স জানাচ্ছে, দক্ষিণ সুদানের প্রাক্তন সেনাপ্রধান পল মালং গৃহবন্দি৷ দেশটির প্রেসিডেন্ট সালভা কিরের নির্দেশে তাঁকে বন্দি করা হয়েছে৷ খোদ প্রেসিডেন্ট সালভা কিরের দিকে হুমকি ছুঁড়েছেন প্রাক্তন সেনাপ্রধান৷

পরিস্থিতি ঘোরালো আকার নিয়েছে দেখেই রাজধানী শহর জুবার বাসিন্দারা ঘরে সেঁধিয়ে গিয়েছেন৷ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান তাদের কর্মীদের নিরাপদে রাখতে উদ্বিগ্ন৷ গৃহযুদ্ধে রক্তাক্ত আফ্রিকার এই দেশটি ফের রক্তাক্ত হতে পারে বলেই আশঙ্কা৷

এদিকে গৃহবন্দি প্রাক্তন সেনাপ্রধান মালংয়ের স্ত্রী লুইসি আয়েক মালেক টেলিফোনে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থাকে পরিস্থিতির বর্ণনা দিয়েছেন৷ তিনি বলেন, ঘরের চারিদিকে সেনাবাহিনী পজিশন নিয়েছে৷ কয়েকজন কমান্ডিং অফিসার এসে দেহরক্ষীদের অস্ত্র নামানোর নির্দেশ দেয়৷ বলা হয় প্রেসিডেন্টের নির্দেশে পালন করছে সেনাবাহিনী৷

গত মে মাসে সেনাপ্রধান পদ থেকে পল মালংকে সরিয়ে দেওয়া হয়৷ সুদান ও দক্ষিণ সুদানের মধ্যে চলতে থাকা গৃহযুদ্ধে বহু নিরীহকে খুন করার অভিযোগ রয়েছে পল মালংয়ের বিরুদ্ধে৷

২০১১ সালে মুসলিম প্রধান সুদান থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বী প্রধান দক্ষিণ সুদান তৈরি হয়৷ এরপরেই গৃহযুদ্ধে রক্তাক্ত হয় দেশটি৷ এই সংঘর্ষে বহু মানুষের মৃত্যু হয়েছে৷ এই ঘটনা আফ্রিকারই অপর দেশ রোয়ান্ডার গণহত্যার মতো ভয়াবহ৷ প্রেসিডেন্ট সালভা কির বনাম ভাইস প্রেসিডেন্ট রিক মার্চারের অনুগত সেনার মধ্যে হয়েছে প্রবল সংঘর্ষ৷