লন্ডন: ক্রিকেট মক্কায় ভারতীয়দের ব্যাটিং একরাশ লজ্জা এনে দিয়েছে দেশবাসীকে৷ কিন্তু লর্ডসে এমসিসি-র প্রশংসা কুড়লেন ১৮ বছরের সচিন পুত্র৷ বৃষ্টিবিঘ্নিত লর্ডসে ভারত-ইংল্যান্ড দ্বিতীয় টেস্ট শুরু আগে গ্রাউন্ড স্টাফদের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন অর্জুন তেন্ডুলকর৷

কিংবদন্তি সচিন তেন্ডুলকরের পুত্র অর্জুন সম্প্রতি ভারতীয় অনূর্ধ্ব-১৯ দলে সুযোগ পেয়েছেন৷ গত মাসে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ইয়ুথ টেস্ট সিরিজে দু’টি চারদিনের ম্যাচেও খেলেছেন৷ তার পর লর্ডসে ভারতীয়দের নেটে বোলিং করে মিডিয়ার নজর করেছেন ১৮ বছরের বাঁ-হাতি পেসার৷ কিন্তু শুক্রবার ক্রিকেট মক্কায় অন্য কারণে মিডিয়ার দৃষ্টি আকর্ষণ করলেন৷ বৃষ্টিবিঘ্নিত লর্ডসে বিরাট-রুটদের লড়াই শুরুর আগে গ্রাউন্ড স্টাফদের সাহায্য করতে এগিয়ে যান৷

আরও পড়ুন: গুরুর ভুমিকায় এসে অভিভূত সচিন

সম্প্রতি লন্ডন এমসিসি-র ইয়ং ক্রিকেটারদের সঙ্গে ট্রেনিং করছেন অর্জুন৷ তার ফাঁকে লর্ডসের মাঠ কর্মীদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে এমসিসি-র প্রশংসা আদায় করে নেন জুনিয়র তেন্ডুলকর৷ লর্ডসের মাঠে অর্জুনের ছবি পোস্ট করে টুইটারে লর্ডস ক্রিকেট মাঠের ম্যানেজমেন্টের পক্ষে লেখা হয়েছে, ‘শুধু এমসিসি ইয়ং ক্রিকেটারদের সঙ্গে ট্রেনিং নয়, গ্রাউন্ড স্টাফদের প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে অর্জুন৷’

দিনের চারেক আগে লর্ডসে টিম ইন্ডিয়ার নেট প্র্যাকটিসে বোলিং করতে দেখা গিয়েছিল সচিন পুত্রকে৷ এজবাস্টনে বাঁ-হাতি ইংরেজ পেসার স্যাম কুরানের বোলিংরে মোকাবিলা করতে ব্যর্থ হয়েছিল ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা৷ ব্যক্তিক্রম ছিলেন শুধু ক্যাপ্টেন কোহলি৷ ভারতের প্রথম ইনিংসে ৭৪ রান দিয়ে চাচ উইকেট তুলে নিয়েছিলেন কুরান৷ লর্ডসে দ্বিতীয় টেস্টে এই বাঁ-হাতি পেসারের মোকাবিলা করার জন্য নেটে অর্জুনের বাঁ-হাতি পেস বোলিং খেলেন বিরাটরা৷ নেটে মুরলী বিজয় ও বিরাট কোহলিকে বোলিং করেন অর্জুন৷

আরও পড়ুন: জিমির পাঁচে ১০৭ রানে শেষ ভারত

বৃষ্টিতে লর্ডস টেস্টের প্রথম দিন মাটে বল গড়ায়নি৷ কিন্তু দ্বিতীয় দিন খেলা শুরু হলে মুখ থুবরে পরে ভারতীয় ব্যাটিং৷ এবার অবশ্য কুরানের বাঁ-হাতি সুইং নয়, জেমস অ্যান্ডরসনের বিষাক্ত সুইংয়ে কুপোকাত হয় ভারতীয় ব্যাটিং৷ মাত্র ১০৭ রানে গুটিয়ে যায় ভারতের প্রথম ইনিংস৷ মাত্র ১৪ ওভার হাত ঘুরিয়ে মাত্র ২০ রান খরচ করে পাঁচটি উইকেট তুলে নেন অ্যান্ডারসন৷ ভারতীয় ইনিংসের সর্বোচ্চ ২৯ রান আসে অফ-স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিনের ব্যাট থেকে৷ না-হলে একশোর গণ্টি টপকাতে পারত না ভারত৷ ২৩ রান করে ক্রিস ওয়াকসের শিকার হন ক্যাপ্টেন কোহলি৷ ভারতের ছ’ ব্যাটসম্যান দু’ অংকের রানে পৌঁছতে পারেনি৷

আরও পড়ুন: ঝুঁকি নিয়ে মাঠে ফিরতে চান না ঋদ্ধি

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।