কলকাতা: খাতায় কলমে কার্তিকের শেষ। মিঠে রোদ আর হিমেল হাওয়ায় ঝরা পাতার মরসুমে শহরে হেমন্তের আমেজ। শীত না এলেও আগামীকাল অর্থাৎ সোমবার থেকে রাতে তাপমাত্রা কমবে মহানগরে। এমনই আশ্বাস দিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

ভোরবেলা হিমেল হাওয়ার সঙ্গে বেশ শীতের স্পর্শ টের পাওয়া যাচ্ছিল। কিন্তু বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গেই উধাও হিমেল পরশ উল্টে গনগনে সূর্যের তাপে নাভিশ্বাস অবস্থা আমজনতার। আবহাওয়ার এই খামখেয়ালিপনায় বাড়ছে সর্দি-জ্বরের প্রকোপও। তাই এই সময় সতর্ক থাকতে বলছেন চিকিৎসকেরা।

শীতের মরসুম শুরুর কিছুদিন আগেই শহরে আঘাত হেনেছিল ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’। ভারতের থেকে দূরে থাকলেও চোখ রাঙাচ্ছে ঘূর্ণিঝড় ‘নাকরি’। কিন্তু রবিবার রাত থেকেই ধীরে ধীরে পারদ নিম্নমুখী হবে বলেই জানিয়েছে হাওয়া অফিস। রবিবার প্রধানত পরিষ্কার আকাশের সঙ্গে হিমেল হাওয়া থাকলেও বেলা বাড়তেই বেড়েছে পারদ। এ দিন শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ১৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি।

বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বাধিক ৯৬ শতাংশ, সর্বনিম্ন আর্দ্রতার পরিমাণ ন্যুনতম ৪৯ শতাংশ। আপাতত বৃষ্টির কোনও সম্ভাবনা নেই। সোমবার থেকে তাপমাত্রা কমতে শুরু করবে। আগামী তিন দিনে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা দুই থেকে তিন ডিগ্রি কমতে পারে। তবে, পাকাপাকিভাবে শীত আসবে কি না সে বিষয়ে এখনই কোনও আশ্বাসবাণী দিতে পারেনি আবহাওয়া দফতর।