স্টাফ রিপোর্টার , কলকাতা : বুধবার ফের নামতে পারে শহরের পারদ। এমনটাই জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। গত বৃহস্পতিবার ছিল এই মরশুমের শীতলতম দিন। এরপর থেকে তাপমাত্রা ক্রমশ বেড়েছে। সোমবার সেই তাপমাত্রা গিয়ে দাঁড়িয়েছে ১৯.৪ ডিগ্রিতে। যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি বেশি। আগামী কয়েকদিন তাপমাত্রা এরকমই থাকবে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস।

তবে পশ্চিমী ঝঞ্ঝার কারণে বুধবার থেকে আবহাওয়ার পরিবর্তন হতে পারে। আরব সাগরে নিম্নচাপ তৈরি হয়েছে। সেখানে তৈরি হওয়া ঘূর্ণিঝড় পবনের কারণে বাধাপ্রাপ্ত হচ্ছে উত্তর পশ্চিম বায়ু। ফলে বাড়ছে তাপমাত্রা। পশ্চিম দিকের বদলে পূর্ব দিক থেকে রাজ্যে হাওয়া ঢুকছে। কিন্তু পূর্ব দিকের হাওয়া তুলনায় গরম। ফলে রাজ্যের তাপমাত্রা বেড়েছে।আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে, বুধবার নাগাদ জম্মু ও কাশ্মীরে পশ্চিমি ঝঞ্ঝা প্রবেশ করবে। সেই সময় তাপমাত্রা কিছুটা কমতে পারে।

আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস অনুযায়ী, আগামী কয়েকদিন তাপমাত্রার সেরকম কোনও পরিবর্তন হবে না। পাশাপাশি আকাশ মেঘলা থাকবে। ভোরের দিকে থাকবে কুয়াশা। তবে সকাল ও সন্ধেয় কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে শীতের আমেজ থাকবে। আজ সোমবার কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩০.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি বেশি। অর্থাৎ ২৭ ডিগ্রি এই সময়ের স্বাভাবিক সর্বোচ্চ তাপমাত্রা। ৩০ হলে স্বাভাবিকভাবেই গরম অনুভূত হবে। সঙ্গে রয়েছে আপেক্ষিক আর্দ্রতা , যার পরিমাণ সর্বোচ্চ ৯৭ , সর্বনিম্ন ৪৭ শতাংশ।

আগামীকাল  শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে থাকবে, সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে ২৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে। আসানসোল ১৬.৫ বালুরঘাট ১৪.৪ বাঁকুড়া ১৬.৫ ব্যারাকপুর ১৬.৩ বর্ধমান ১৭.০ ক্যানিং ১৯.০ কাঁথি ১৭.০ কোচবিহার ৮.৯ দার্জিলিং ৫.০ ডায়মন্ডহারবার ১৯.৬ দিঘা ১৯.৫ কৃষ্ণনগর ১৭.৪ মালদহ ১৭.৬ পুরুলিয়া ১৫.০ শিলিগুড়ি ৯.০ শ্রীনিকেতন ১৯.০।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা