লন্ডন: দু’বছর আগে বিগ বেনের দেশে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে পাকিস্তানের কাছে হেরে ফিরতে হয়েছিল খালি হাতেই। এবার সেই ভুল করতে নারাজ দল। কিন্তু বিশ্বকাপ আর চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি যে এক বিষয় নয়, হাড়ে হাড়ে জানেন দলের প্রত্যেক ক্রিকেটাররা। তবে অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বজয়ের মত সিনিয়র দলের নেতা হিসেবেও বিশ্বজয়ের লক্ষ্য নিয়ে লন্ডন পৌছে গেলেন বিরাট কোহলি। সঙ্গে তাঁর বিশ্বস্ত সেনানীরা।

পুনরায় দেশের প্রধানমন্ত্রী পদে নরেন্দ্র মোদী আসীন হবেন কিনা, তা জানতে আরও কয়েকঘন্টার অপেক্ষা। যদিও সেই মাহেন্দ্রক্ষণের প্রাক্কালেই দেশবাসীর একরাশ শুভকামনা নিয়ে লন্ডন পৌছে গেলেন বিরাটরা। ৩০ মে ইংল্যান্ড ও ওয়েলসের মাটিতে শুরু হচ্ছে ওয়ান ডে বিশ্বকাপের দ্বাদশ সংস্করণ৷ কেনিংটন ওভালে উদ্বোধনী ম্যাচে আয়োজক ইংল্যান্ডের সামনে দক্ষিণ আফ্রিকা৷ ভারত বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করবে আরও কয়েকদিন পর৷ ৫ জুন টাইটানিকের শহর সাউদাম্পটনের রোজ বোলে বিরাটদেরও প্রথম প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা৷

এদিন লন্ডন বিমানবন্দরে নেমে ফটোসেশনে অংশ নেয় ভারতীয় দল। সঙ্গে ছিলেন কোচ ও সাপোর্ট স্টাফেরা। সেখান থেকে টিম বাস বিরাটদের সরাসরি পৌঁছে দেয় হোটেলে। রাণীর দেশে পৌছে সাংবাদিকদের সামনে সেই অর্থে মুখোমুখি না হলেও ভারতীয় দলের ফটোসেশনের টুকরো ছবি সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে নেটিজেনদের কাছে। বুধবার ভোরে মুম্বই বিমানমন্দর থেকে লন্ডনের বিমান ধরেছিলেন কোহলিরা।

অধিনায়ক হিসেবে প্রথমবার বিশ্বকাপের ভারতকে নেতৃত্ব দেবেন বিরাট৷ ১৯৯২-এর পর বিশ্বকাপের নতুন ফর্ম্যাটকে চ্যালেঞ্জিং বলছেন ভারত অধিনায়ক৷ ১৯৯২-এর চ্যাম্পিয়নদের বিরুদ্ধে বিরাটরা মাঠে নামে ১৬ জুন৷ ম্যাঞ্চেস্টার মহারণই বিশ্বকাপের ইউএসপি৷অধিনায়ক হিসেবে প্রথমবার বিশ্বকাপের ভারতকে নেতৃত্ব দেবেন বিরাট৷ ১৯৯২-এর পর বিশ্বকাপের নতুন ফর্ম্যাটকে চ্যালেঞ্জিং বলছেন ভারত অধিনায়ক৷ ১৯৯২-এর চ্যাম্পিয়নদের বিরুদ্ধে বিরাটরা মাঠে নামে ১৬ জুন৷ ম্যাঞ্চেস্টার মহারণই বিশ্বকাপের ইউএসপি৷

দেশ ছাড়ার আগে মঙ্গলবার ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সদর দফতর মুম্বইয়ের ক্রিকেট সেন্টারে মঙ্গলবার বিকেলে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েছিলেন ক্যাপ্টেন কোহলি ও কোচ রবি শাস্ত্রী৷ ২৭ বছর পর ফের বিশ্বকাপ ফিরেছে রাউন্ড-রবিন ফর্ম্যাটে৷ শেষবার এই ফর্ম্যাটে ওয়ান ডে বিশ্বকাপ হয়েছিল ১৯৯২ সালে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের মাটিতে৷ এই ফর্ম্যাটের বিশ্বকাপকে অত্যন্ত চ্যালেঞ্জিং বলছেন ভারত অধিনায়ক৷ সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে ক্যাপ্টেন কোহলি বলেন, ‘এটা অত্যন্ত চ্যালেঞ্জিং বিশ্বকাপ হতে চলেছে৷ যে কোনও দল আপসেট করতে পারে৷ আমাদের দ্রুত পরিবেশ ও পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিতে হবে৷’