ইন্দোর: ব্যাট হাতে ব্যর্থ হলেন বিরাট কোহলি। যদিও দলনায়কের ব্যর্থতার প্রভাব পড়ল না টিম ইন্ডিয়ার পারফর্ম্যান্সে। বরং দ্বিতীয় দিনের লাঞ্চেই প্রথম ইনিংসের নিরিখে বাংলাদেশকে পিছনে ফেলে দিল ভারত।

টস ভাগ্য সঙ্গ না দিলেও ইন্দোরে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টের রাশ শুরু থেকেই ভারতের হাতে ছিল। প্রথম দিনে টাইগারদের প্রথম ইনিংস ১৫০ রানে গুটিয়ে দেয় ভারত। পালটা ব্যাট করতে নেমে প্রথম দিনের শেষে ১ উইকেটের বিনিময় ৮৬ রান তোলে টিম ইন্ডিয়া। রোহিত শর্মা ৬ রানে আউট হন ইনিংসের শুরুতেই। ময়াঙ্ক আগরওয়াল ৩৭ ও চেতেশ্বর পূজারা ব্যক্তিগত ৪৩ রানে অপরাজিত ছিলেন। তার পর থেকে খেলতে নেমে দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশনে একজোড়া উইকেট হারালেও সহ-অধিনায়ক অজিঙ্কা রাহানেকে সঙ্গে নিয়ে ময়াঙ্ক ভারতকে ম্যাচে চালকের আসনে বসিয়ে দেন।

আরও পড়ুন: লেনের গোলে আফগানদের বিরুদ্ধে মানরক্ষা ভারতের

দিনের শুরুতে চেতেশ্বর পূজারা আবু জায়েদের বলে পরিবর্তে ফিল্ডার সঈফ হাসানের হাতে ধরা পড়েন। তবে তার আগে ব্যক্তিগত অর্ধশতরান পূর্ণ করেন পূজারা। ৯টি বাউন্ডারির সাহায্যে ৭২ বলে ৫৪ রান করে সাজঘরে ফেরেন চেতেশ্বর। পরের ওভারে বল করতে এসে সেই আবু জায়েদই তুলে নেন বিরাট কোহলির মূল্যবান উইকেট। মাত্র ২ বল ক্রিজে কাটিয়ে খাতা খুলতে পারেননি ভারত অধিনায়ক। কোহলি এলবিডব্লিউ হয়ে প্যাভিলিয়নের পথে হাঁটা লাগান। উল্লেখ্য, প্রথম দিনে রোহিত শর্মাকেও ফেরত পাঠিয়ে ছিলেন আবু জায়েদ। অর্থাৎ টিম ইন্ডিয়ার টপ অর্ডারের প্রথম তিন জন ব্যাটসম্যানের ফেরত পাঠান ২৬ বছর বয়সী নবাগত এই বাংলাদেশি পেসার।

আরও পড়ুন: আমার জন্য নয় শামির জন্য গলা ফাটাও, ইন্দোরের দর্শকদের বললেন বিরাট

দ্বিতীয় দিনের মধ্যাহ্নভোজের বিরতিতে ভারত আপাতত ৩ উইকেটের বিনিময় ১৮৮ রান তুলেছে। অর্থাৎ, প্রথম ইনিংসের নিরিখে ইতিমধ্যেই বাংলাদেশের থেকে ৩৮ রানে এগিয়ে রয়েছে টিম ইন্ডিয়া। ব্যক্তিগত শতরানের দোরগোড়ায় দাঁড়িয়ে রয়েছেন ওপেনার ময়াঙ্ক আগরওয়াল। তিনি অপরাজিত রয়েছেন ১৬৬ বলে ৯১ রান করে। এ পর্যন্ত অনবদ্য ইনিংসে ১৩টি বাউন্ডারি ও ১টি ছক্কা মেরেছেন আগরওয়াল। অজিঙ্কা রাহানে নট-আউট রয়েছেন ৭২ বলে ৩৫ রান করে। তিনি ৫টি বাউন্ডারি মেরেছেন।