শিলিগুড়ি: ফের সংকট তৈরি হতে চলেছে চা-শিল্পে৷ কারণ, চা-শ্রমিকদের জয়েন্ট ফোরামের তরফে ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছে৷

সোমবার উত্তরবঙ্গের সচিবালয় শিলিগুড়ির উত্তরকন্যায় চা-শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি নিয়ে একটি বৈঠক ছিল৷ সেই বৈঠকের পরই জয়েন্ট ফোরাম এই ধর্মঘটের ডাক দেয়৷

আরও পড়ুন: জয়পুরে জীবিত ব্যক্তির শেষকৃত্য!

ফোরামের তরফে জানা গিয়েছে, প্রশাসনের ডাকা ওই বৈঠকে কোনও সমাধান সূত্র বেরয়নি৷ তাই তারা এই ধর্মঘটে সামিল হতে চলেছে৷ আগামিকাল, মঙ্গলবার থেকে এই ধর্মঘট শুরু হবে৷ চলবে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত৷

এ নিয়ে ফোরামের তরফে উত্তরকন্যার সামনে বিক্ষোভও দেখানো হয়৷ তার পর ফোরামের কনভেনার জিয়াউল আলম সংবাদমাধ্যমকে জানান, আগামিকাল থেকে তরাই-ডুয়ার্সের সমস্ত চা-বাগান এই ধর্মঘটে সামিল হবে৷ এমনকী পাহাড় থেকে চা রফতানিও হবে না৷

আরও পড়ুন: অস্ত্র-সহ গ্রেফতার দুই দুষ্কৃতী

ফলে বোঝাই যাচ্ছে আগামী তিনদিন প্রায় থমকে যাবে চা-শিল্প৷ ফলে প্রচুর পরিমাণ রাজস্ব ক্ষতি হবে৷ কিন্তু এ নিয়ে প্রশাসন কী ভাবছে, তা অবশ্য জানা যায়নি৷

আরও পড়ুন: জমা জলের দুর্ভোগ কাটাতে অবরোধে ঘুসুড়ির বাসিন্দারা

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.