কলকাতা: আগামী ৭ সেপ্টেম্বর ট্যাক্সি ধর্মঘটের ডাক দিল বেঙ্গল ট্যাক্সি অ্যাসোসিয়েশন। ভাড়া বৃদ্ধির দাবিতে সরব ট্যাক্সিমালিকরা। ট্যাক্সির ভাড়া বৃদ্ধির বিষয়টি রাজ্য সরকারকে গুরুত্ব দিয়ে দেখতে আবেদন জানিয়েছেন ট্যাক্সিমালিকরা। ভাড়া বৃদ্ধি না হলে ধর্মঘট করা ছাড়া বিকল্প আর কোনও পথ তাঁদের কাছে খোলা নেই বলে জানিয়েছেন ট্যাক্সিমালিকদের একটি বড় অংশ।

করোনা পরিস্থিতির জেরে এমনিতেই ভাড়া কম হচ্ছে। একটানা কয়েকমাস ধরে লকডাউনের জেরে ব্যাপকভাবে আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছেন ট্যাক্সিমালিকরা। করোনার সংক্রমণ উত্তরোত্তর বেড়ে চলায় রাস্তাঘাটে লোকজনের সংখ্যাও কমেছে।

যাত্রী-সংখ্যা কমে যাওয়ায় এমনিতেই বাড়ছে আর্থিক ক্ষতি। তার ওপর তেলের দাম অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে চলায় মাথায় হাত ট্যাক্সিমালিকদের। ভাড়া বৃদ্ধি ছাড়া ট্যাক্সি পথে নামানো কঠিন হয়ে পড়ছে বলে দাবি তাঁদের।

আগেই ট্যাক্সির ন্যূনতম ভাড়া ৫০ টাকা ও প্রতি কিলোমিটার ২৫ টাকা ভাড়া রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। তবে এই সিদ্ধান্তে সায় ছিল না রাজ্য সরকারের।

সরকারিভাবে এব্যাপারে সহযোগিতা না মেলায় ভাড়া বৃদ্ধি কার্যকর করা যায়নি। ট্যাক্সি ইউনিয়নের দাবি, বাস শিল্পকে বাঁচাতে রাজ্য সরকার যে তৎপরতা নিচ্ছে একইভাবে ট্যাক্সিমালিকদের সুবিধার্থেও নির্দিষ্ট প্রকল্প হাতে নিক রাজ্য সরকার।

ইতিমধ্যেই ভাড়া বৃদ্ধির দাবি জানিয়ে পরিবহণ দফতরের আবেদন জানিয়েছে ট্যাক্সি ইউনিয়নগুলি। এর আগে বেসরকারি বাসমালিকদের আর্থিক ক্ষতি রুখতে তৎপরতা নিয়েছে রাজ্য সরকার।

বেসরকারি বাসমালিকদের রাজ্য আর্থিক সাহায্যের প্রস্তাব দিয়েছিল। তবে তাতে তাঁরা রাজি না হওয়ায় পরবর্তী ক্ষেত্রে এক বছরের পারমিট ছাড়, বাসের বিভিন্ন কর মকুবের সিদ্ধান্ত নেয় রাজ্য সরকার।

এবার ট্যাক্সিমালিকদের সুবিধার্থেও সুনির্দিষ্ট পদক্ষেপের দাবি উঠেছে। ট্যাক্সি-শিল্পে আর্থিক ক্ষতি রুখতে রাজ্য সরকারকে তৎপরতা নিতে আবেদন জানিয়েছে ট্যাক্সি ইউনিয়নগুলি।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা