নয়াদিল্লি:  ক্রমশ দুনিয়া এগোচ্ছে। প্রযুক্তির হাতে ধরে একের পর এক আবিষ্কার। পিছিয়ে নেই বিশ্বের প্রথম সারির দেশগুলিও। একের পর এক উদ্ভাবনি বিশ্বকে কার্যত চমকে দিচ্ছে। যদিও প্রথম বিশ্বের থেকে কোনও অংশে পিছিয়ে নেই ভারতও। ইতিমধ্যে দেশীয় প্রযুক্তিকে হাতিয়ার করে একের পর এক আবিষ্কার করে চলেছে দেশের বিজ্ঞানীরা। ইতিমধ্যে চাঁদ ছুঁয়েছে ভারত। অন্যান্য ক্ষেত্রেও ক্রমশ এগোচ্ছে ভারত। এবার বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে স্মার্ট গাড়ি বানাতে চলেছে ভারত।

যদিও স্মার্ট গাড়ি বানানো নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে কাজ চালাচ্ছে দেশের বেশ কয়েকটি গাড়ি প্রস্তুতকারী সংস্থা। যার মধ্যে অন্যতম টাকা মোটরস। সবথেকে অবাক বিষয় হল, টাটা মোর্টরসকে স্মার্ট কার বানাতে সাহায্য করবে টেলিকম সংস্থা ভারত সঞ্চার নিগম লিমিটেড (বিএসএনএল)। ভাবতে অবাক লাগলেও এটাই সত্যি। বিএসএনএলের সঙ্গে জোট বেঁধে স্মার্ট গাড়ি বানাবে টাটা।

এক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর মোতাবেক, এই স্মার্ট গাড়িতে বসানো থাকবে বিএসএনএলের সিমকার্ড। সেই সিমকার্ডকে কাজে লাগিয়েই যোগাযোগের অত্যাধুনিক ব্যবস্থা থাকবে টাটার কিছু গাড়িতে। গাড়ি সংস্থার সঙ্গে টেলিকম কোম্পানির এই গাঁটছড়া দেশের ইতিহাসে এই প্রথম। সিমকার্ড গাড়িতে এমবেড করার ফলে গড়ে উঠবে মেশিন টু মেশিন যোগাযোগের মাধ্যম। এর ফলে গাড়িতে বসেই নজর রাখা যাবে বাড়ির উপর। এ ছাড়াও মোবাইল সংক্রান্ত সমস্ত কাজ কর্ম করা যাবে গাড়িতে বসেই।

এই চুক্তি নিয়ে বিএসএনএলের তরফে জানানো হয়েছে যে, টাটা মোটরসের সঙ্গে রাষ্ট্রীয় টেলিকম সংস্থা বিএসএনএলের চুক্তি হয়ে গিয়েছে। পাঁচ লক্ষ সিমকার্ড আমরা ইতিমধ্যেই টাটাকে দিয়ে দিয়েছি। এ বছরে আরও ১০ লক্ষ সিমকার্ড দেব আমরা।