নয়াদিল্লি: সুখবর! দেশে ৩০০ টি চার্জিং স্টেশন বসাতে চলেছে টাটা মোটরস। চলতি বছরেই টাটা মোটরস এবং টাটা পাওয়ারের যৌথ উদ্যোগে দেশের মানুষ এই সুবিধে পেতে চলেছেন। দেশের বড় বড় পাঁচটি শহরে বসতে চলেছে এই চার্জিং স্টেশনগুলি। শুক্রবার টাটা মোটরস এবং টাটা পাওয়ার জানিয়েছে যে, তাঁরা যৌথভাবে এই ব্যবস্থাপনা করবে। ৩০০ টি ফার্স্ট চার্জিং স্টেশন বসাবে তারা। দেশের বড় বড় পাঁচটি শহরে বসানো হবে চার্জিংস্টেশনগুলি। যেগুলির মধ্যে রয়েছে মুম্বই, দিল্লি, পুনে, বেঙ্গালুরু এবং হায়দরাবাদ।

এই উদ্যোগের অংশ হিসেবে শুক্রবার পুনে শহরে সাতটি চার্জিং স্টেশনের উদ্বোধন করা হয়েছে। শহরেই মোবিলিটি সক্রিয় করার উদ্দেশ্যেই এমনটা করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। আগামী দু’মাসে পরিকল্পনা করা হয়েছে আরও ৪৫ টি চার্জিং স্টেশনের উদ্বোধন করা হবে। বাকি চারটি শহরে বসানো হবে বাকি ৪৫ টি চার্জিং স্টেশন। টাটা মোটরসের ডিলারশিপে এই চার্জারগুলি বসানো হবে। টাটা গ্রুপের রিটেল আউটলেট এবং অন্যান্য পাবলিক লোকেশনগুলিতেও এগুলি পাওয়া যাবে।

টাটা পাওয়ারের ম্যানেজিং ডিরেক্টর এবং সিইও প্রবীর সিনহা একটি বিবৃতিতে জানিয়েছেন, “আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে ইভি চার্জিংকে যতটা সম্ভব দ্রুততায় আনা এবং ভারতবাসীর জন্য সহজতর করে তোলা। টাটা মোটরসের সঙ্গে যৌথতায় আসতে পেরে আমরা খুশি। যাদের সঙ্গে আমরা পোটেনশিয়াল ইলেকট্রিক ভেহিকেল ওনার্সদের জন্য হাই প্রায়োরিটি লোকেশনের সুবিধা দিতে পারব।”

টাটা মোটরসের সিইও এবং এমডি গুইনটার ব্যাটসচেক জানিয়েছেন, “সংস্থার যাত্রাপথে গ্রাহকদের সম্পূর্ণ ইকো সিস্টেম সলিউশন এবং পরিতৃপ্তি দেওয়ার ক্ষেত্রে পার্টনারশিপ হল একটি গুরুত্বপূর্ণ মাইল স্টোন।

তিনি আরও বলেন, “আমরা সুদৃঢ় মোবিলিটি মিশন জনগণের কাছে উপহার দিতে বদ্ধপরিকর। সেই সঙ্গেই গ্রাহকদের ই-মোবিলিটি সলিউশন দিতে চাই। দেশে ই-ভেহিকেলকে দ্রততর করে তুলতে চাই আমরা।”