নয়াদিল্লি: মঙ্গলবার টাটা মোটরস জানাল, এই সংস্থার দেশের সমস্ত উৎপাদন ইউনিট গুলিতে কাজ শুরু হয়েছে। নিয়ন্ত্রক সংস্থার কাছে বিধিবদ্ধ ফাইল করার সময় এই সংস্থাটি জানিয়েছে, এই সংস্থার জামশেদপুরের কারখানাসহ সংস্থার সমস্ত কারখানায় পুনরায় কাজ শুরু করেছে, যারা ২৭ মে এই ব্যাপারে অনুমোদন পেয়েছে ।

সংস্থার ৫৯ শতাংশ যাত্রীবাহী যানের শোরুম যা খুচরো বাজারের ৬৯ শতাংশ সেখানে কাজকর্ম শুরু হয়েছে। টাটা মোটরসের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, সরবরাহের দিক থেকে বাণিজ্যিক গাড়ির ক্ষেত্রে ৯০ শতাংশ সরবরাহকারী অনুমতি পেয়েছে কাজ করার। এদের মধ্যে ৬০ শতাংশ সক্ষম হয়েছে সরবরাহ শুরু করে দেওয়ার।

২০২০ সালের ৩১ মার্চ এই অটোমোবাইল কোম্পানির কাছে নগদ বা তার সমতুল্য অর্থ ছিল ৪৭০০ কোটি টাকা এবং তোলা হয়নি এমন ক্রেডিট ফেসিলিটি ছিল ১৫০০ কোটি টাকা বলে জানানো হয়েছে।

এছাড়া আরও নগদের পরিমাণ বাড়াতে কোম্পানির পক্ষ থেকে ৩৫০০ কোটি টাকার কমার্শিয়াল পেপার ইস্যু করা হয়েছে। তাছাড়া নন কনভার্টাইবেল ডিবেঞ্চার (এনসিডি) মারফত আরও ১০০০ কোটি টাকা তুলেছে সংস্থাটি।

প্রশ্ন অনেক: দ্বিতীয় পর্ব