নয়াদিল্লি: ‘ভারত মাতা কি জয়’- এই স্লোগান নিয়ে গত কয়েক বছরে বিতর্ক বেশ প্রকট। কখনও মোদী সরকারের মন্ত্রী বলেছেন, ‘দেশে থাকলে বলতেই হবে ভারত মাতা কি জয়’। আবার কখনও এই স্লোগান না দেওয়ার ফতোয়া জারি হয়েছে।

এবার এই স্লোগান নিয়ে মুখ খুললেন বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন। প্রজাতন্ত্র দিবসের দিনেই এই নিয়ে ট্যুইট করেছেন লেখিকা। লিখেছেন, ‘আমার তো ভারত মাতা কি জয় বা বন্দেমাতরম বলতে কোনও অসুবিধা হয় না। অন্যদের কেন এতে অসুবিধা হয়, বুঝি না।’

কিছুদিন আগেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান ঘোষণা করেন, ‘ভারত মাতা কি জয়’ বলতে যারা প্রস্তুত তারাই শুধু ভারতে থাকতে পারবেন। তাঁর সেই বক্তব্যে তৈরি হয় বিতর্কও।

তসলিমা নাসরিন বরাবরইবিতর্কিত মন্তব্যে শিরোনামে এসেছেন। জোর গলায় নিজেকে ইসলাম বিরোধী বলেছেন বরাবর।

কিছুদিন আগে সোমালিয়ায় একটি ভয়াবহ বিস্ফোরণে প্রায় ৭৩ জনের মৃত্যু হয়েছিল। আহত হন শ’খানেক মানুষ। আর এই ঘটনার পরই মুখ খোলেন তসলিমা।

ট্যুইটারে তিনি লিখেচিলেন, সোমালিয়ায় এতগুলো নিষ্পাপ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এতে কী লাভ হল?

যদিও এখনও পর্যন্ত কোনও সংগঠন এই ঘটনার দায় স্বীকার করেনি, তবে ইসলামিক সন্ত্রাসবাদীরাই এর পিছনে আছে ধরে নিয়ে তসলিমা বলেন, ‘এতে কী সত্যিই ইসলামের কোনও লাভ হল? না, হল না। আর কতদিন মুসলিমরা এভাবে নিজেদের বোকামো সামনে নিয়ে আসবে?’

এরপরই আরও একটি ট্যুইট করেন তসলিমা। লিখেছেন, ‘আমি ইসলাম ধর্মের বিরোধী এর নারী-বিদ্বেষ আর পিতৃতন্ত্রের দাপটের জন্য। কিন্তু আমি নিষ্পাপ মুসলিমদের বিরোধী নই। আমি নিপীড়িত মুসলিমদের পাশে আছি। ঠিক যেমন আমি নিপীড়িত হিন্দু, বৌদ্ধ কিংবা ক্রিশ্চানদের পাশে আছি।